cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

ছায়ানটে শুদ্ধসঙ্গীত উৎসব শুরু

1st Image

(২০১৭-১২-২২ ০৫:২৬:৩৫)

সিপ্লাস ডেস্ক: শেষ সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত এই আয়োজন। পুরোটা জুড়ে শাস্ত্রীয়ঙ্গীতের কণ্ঠ ও যন্ত্রসঙ্গীত। শিল্পীদের সে পরিবেশন বিশেষভাবে আকৃষ্ট করে সঙ্গীত পিপাসু বাঙালিকে। ১৪১৫ বঙ্গাব্দের হেমন্তে প্রথম যে উৎসব দাগ কেটেছিল সঙ্গীতপ্রেমীদের হৃদয়ে, তার রেশ কাটেনি এখনো। তাই তো প্রতি বছরের মতো এবারো পৌষের সন্ধ্যায় শুরু হলো শুদ্ধ সংগীত চর্চার সে আয়োজন।
সকলের মাঝে শুদ্ধ সঙ্গীতচর্চার প্রতি অনুরাগ ছড়িয়ে দিতে প্রতি বছরই ছায়ানট আয়োজন করে সঙ্গীত-উৎসব। তারই আলোকে বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) শুরু হলো দুই দিনব্যাপী ‘শুদ্ধসঙ্গীত উৎসব’।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছায়ানট মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মঞ্জুশ্রী রায় চৌধুরী। জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া এ আয়োজনে স্বাগত কথন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ছায়ানটের সহ-সভাপতি খায়রুল আনাম শাকিল। এরপর আসে পরিবেশন।
ইফতেখার আলম ডলারের তবলা ও রেজোয়ান আলীর পরিচালনায় প্রথম নিবেদন ছায়নট বৃন্দের পরিবেশনা। এরপরই কণ্ঠসঙ্গীতে মধুবন্তী রাগ নিবেদন করেন ঢাকার দীপ্তি সমাদ্দার। ইফতেখার আলম ডলারের তবলার জাদুতে সুর পায় টিংকু শীলের হারমোনিয়াম, সঞ্চিতা দাস তৃষা ও লায়েকা বশীর তানপুরাও। তাদের পাশাপাশি আসরে যন্ত্র ও মনোমুগ্ধকর কণ্ঠসঙ্গীত পরিবেশন করেন ঢাকার বিভিন্ন গুণী শিল্পীরা।
আয়োজনের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়ে চলবে রাতব্যাপী। এদিন শুদ্ধসঙ্গীতের আয়োজনে থাকবেন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা শিল্পীরা। বিজন চন্দ্র মিস্ত্রী, অসিত দে, অসিত রায়সহ দেশবরেণ্য শিল্পীরা এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য। আর শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের এ আয়োজন সকলের জন্য উন্মুক্ত করেছে ছায়ানট পর্ষদ।