জাবিতে টাকা পাওয়ার কথা স্বীকার করা সেই তিন ছাত্রলীগ নেতার মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন!

সিপ্লাস ডেস্ক
  • Update Time : বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ am
  • ৬২৩ বার পড়া হয়েছে

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ থেকে ছাত্রলীগকে ১ কোটি টাকা দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে সেখান থেকে ২৫ লাখ টাকা পেয়েছেন বলে স্বীকারোক্তি দেওয়া সেই তিন ছাত্রলীগ নেতার (সাদ্দাম হোসেন, নিয়ামুল হাসান তাজ, শামীম মোল্লা) মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের গেস্ট রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন।

ঈদের আগে উপাচার্য ফারজানা ইসলামের কাছ থেকে ছাত্রলীগ ১ কোটি টাকা সালামি পেয়েছে বলে সংগঠনটির একাধিক নেতা স্বীকার করেন।

ওই ১ কোটি টাকা থেকে ২৫ লাখ টাকার ভাগ পেয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন জাবি ছাত্রলীগের সহসভাপতি নিয়ামুল হাসান তাজ।

তিনি বলেন, ঈদের আগে এক কোটি টাকার চাঁদা থেকে আমি ও সাদ্দাম (জাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক) ২৫ লাখ টাকার ভাগ পেয়েছি।

বিষয়টি গণমাধ্যমে আসার পরই হুমকি পাচ্ছেন ও তাদের মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে সাদ্দাম হোসাইন বলেন, ‘গত ৯ আগস্ট উপাচার্যের বাসায় যে প্রকল্পের টাকা ভাগ বাটোয়ারা করা হয়েছে সেই তথ্য আমি গণমাধ্যমে দিয়েছি। তার কারণে আমি নানারকম হুমকি পাচ্ছি। গত কয়েকদিন আগে আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল থেকে আমার মোবাইল ফোন থেকে কারো সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না।’

শুধু তারই নয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নিয়ামুল হোসেন তাজ, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম মোল্লার ফোনের কানেকশন অফ করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকার বিরোধী তথ্য ফাঁস করছি এই কারণে আমাদের এই তিনজনকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়তে বলা হচ্ছে। এসব হুমকিতে আমরা নিরাপত্তা ঝুঁকিতে আছি।

সংবাদ সম্মেলনে সাদ্দাম হোসাইনের এমন অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করতে গিয়ে জানা যায় শুধু এই তিন ছাত্রলীগ নেতা নয় বরং দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী ও উপাচার্য বিরোধী বলে পরিচিত একাধিক শিক্ষকের মোবাইল ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়।

এর মধ্যে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ- উপাচার্য অধ্যাপক আমির হোসেন, দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান রাইন, নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক শরিফ এনামুল কবীর।

তবে এ রিপোর্ট লেখার সময় এসব শিক্ষকের মোবাইল সংযোগ ঠিক হয়েছে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ১৩ সেপ্টেম্বর শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে সদ্য সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর কথোপকথনের একটি ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে রোববার। সেখানে সাদ্দাম ও তাজের ২৫ লাখ টাকা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 cplusbd.net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
Shares