নিউজটি শেয়ার করুন

হালদায় ডিম ছাড়ার ভরা মৌসুমে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে চলছে ইঞ্জিন চালিত নৌকা

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে দুই নৌকা ধ্বংস

রাউজান (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতাঃ দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র ও বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ হালদা নদীতে চলছে মা মাছের ডিম ছাড়ার ভরা মৌসুম।

এমন সময়ে সকল নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা করে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অবাধে চলাচল করছে ইঞ্জিন চালিত বালুবাহী নৌকা।

নদী খেকোরা একদিকে যেমন বালি উত্তোলন নদীর বাঁক ধ্বংস করছেন অন্যদিকে ইঞ্জিনের পাখার আঘাতে মারা যাচ্ছে মা মাছ।

এদিকে হালদাকে নদী খেকোর হাত থেকে রক্ষা তৎপর রয়েছেন রাউজান উপজেলা ও হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন। এই ধারাবাহিকতায় ১ মে (শনিবার) বেলা দেড় টায় রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ নেতৃত্ব হালদা নদীতে ভ্রাম্যমাণ আদাল পরিচালনা করে দুইটি ইঞ্জিন চালিত বালিবাহী নৌকা ধ্বংস করেন।

এই ঘটনায় জড়িত কাউকে আটকঅ করা সম্ভব হয় নি।

অভিযানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি অতীশ দর্শী চাকমা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নিয়াজ মোরশেদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন, মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধু হেরিটেজ ঘোষিত এশিয়ার অন্যতম কার্প জাতীয় মাছের প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদা নদীর মা মাছ, ডলফিন তথা জীব বৈচিত্র রক্ষায় আজ মদুনাঘাট থেকে ইন্দিরা ঘাট পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে দুইটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা ধ্বংস করা হয়েছে। চলতি প্রজননের মৌসুমে হালদা নদীতে অপরাধ তৎপরতা বন্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।