নিউজটি শেয়ার করুন

হযরত আলী (রাঃ) খেলাফত আমলীয় ১৩৬২ বছর আগের পবিত্র কুরআন প্রদর্শনী শুরু মাইজভান্ডারে

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: হযরত আলী (রাঃ) এর খেলাফত আমলে (৬৬১ খ্রিস্টাব্দ) তাঁর কাছে অর্পিত ৭ম শতাব্দীতে লিখিত ১৩৬২ বছর আগের পবিত্র কোরআন শরীফের অনুমোদিত প্রতিলিপি আজ শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টায় মাইজভান্ডার দরবার শরীফে হযরত শাহসূফি মাওলানা সৈয়দ শফিউল বশর মাইজভান্ডারীর (কঃ) হুজরা শরীফে সর্বস্তরের মানুষের জন্য উন্মুক্ত প্রদর্শন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়। ফটিকছড়ি সংসদীয় আসনের এমপি আলহাজ্ব সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী তাঁর অন্যান্য ভাই ও আওলাদগণকে নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে তা উদ্বোধন করে। ২০ ফেব্রুয়ারি শনিবার রাত পর্যন্ত এ প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে।

উল্লেখ্য- গত ১৯/১২/২০২০ তারিখে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী এই পবিত্র কুরআন শরীফ ত্বরিকত ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী এমপির মাধ্যমে মাইজভান্ডার দরবার শরীফকে উপহার হিসেবে হস্তান্তর করেন। যেটি ভারতের রামপুরে অবস্থিত প্রাচীন ও অনন্য চর্চার কেন্দ্রবিন্দু ‘রেজা গ্রন্থাগারে’ এই পবিত্র কুরআনের পাণ্ডুলিপিটি সংরক্ষিত আছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এইচএম আবু তৈয়ব, ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সায়েদুল আনেফীন, সৈয়দ হাবিবুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ আমিনুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ মাহাতাবুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ আফতাবুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ তৈয়বুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ তৌহিদুল বশর মাইজভান্ডারী, সৈয়দ নজরুল হুদা মাইজভান্ডারী, সৈয়দ শাহাদাৎ উদ্দিন মাইজভান্ডারী,সৈয়দ নাফিছুর রহমান মাইজভান্ডারী,সৈয়দ নাজিম উদ্দিনমাইজভান্ডারী, সৈয়দ মিফতাহুন নূর মাইজভান্ডারীসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত হাজার হাজার ভক্ত বৃন্দ।

উল্লেখ্য যে পবিত্র কোরআন শরীফ দর্শনার্থীদের জন্য দুই ঈদে এবং মাইজভান্ডারী মঞ্জিলের ওরশের সময় প্রদর্শন করা হবে।