নিউজটি শেয়ার করুন

সীতাকুণ্ডে বিয়ের ৮ মাসের মাথায় স্বামীর সাথে অভিমানে স্ত্রীর আত্মহত্যা

সীতাকুণ্ডে বিয়ের ৮ মাসের মাথায় স্বামীর সাথে অভিমানে স্ত্রীর আত্মহত্যা

কামরুল ইসলাম দুলু, সীতাকুন্ড: সীতাকুণ্ডে বিয়ের আট মাসের মাথায় স্বামীর সাথে অভিমান করে কাকলী রানী দেবী (২১) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) বিকাল চারটার সময় উপজেলার ২নং বারৈয়ারঢালা ইউনিয়নের ছোট দারোগারহাটস্থ পূর্ব ধর্মপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

জানা যায়, আটমাস আগে একই ইউনিয়নের দক্ষিণ মহাদেবপুরের নয়ন দেব নাথের কাকলীর বিয়ে হয়। ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরিজীবি স্বামী নয়ন ঈদুল আজহার ছুটিতে বাড়িতে আসেন কয়েকদিন আগে। এরপর তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। শুক্রবার দুপুরে স্বামী-স্ত্রী একসাথে দুপুরের খাবার খাওয়ার পর পরিবারের লোকজনসহ নয়ন মন্দিরে পুঁথি পড়তে যায়। এই ফাঁকে একা ঘরে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে আটমাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী কাকলী। মন্দির থেকে ফিরে ভিতর থেকে রুমের দরজা বন্ধ দেখে জানালা দিয়ে দেখে কাকলী ফ্যানের সাথে ঝুঁলে আছে। এরপর ঘরের দরজা ভেঙে পরিবারের লোকজন তাকে রশি কেটে নিচে নামিয়ে আনে। এরপর পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানালে সীতাকুণ্ড মডেল থানার পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে এসআই ইলিয়াস জানান, আমরা খবর পেয়ে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করি। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।