নিউজটি শেয়ার করুন

সাড়ে ৩ মাস বন্ধ থাকার পর ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু

সিপ্লাস ডেস্ক: চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ ও দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। সাড়ে তিন মাস ধরে দেশে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ ছিল।

শনিবার ভারত থেকে পেঁয়াজবোঝাই কয়েকটি ট্রাক প্রবেশ করার মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়। ফলে বন্দরের সংশ্লিষ্টদের মধ্যে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে।

এদিকে, ভারতীয় পেঁয়াজের চালান দেশে আসায় বাজারে দাম কমতে শুরু করেছে। একদিনের ব্যবধানে দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমে বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩২ টাকায়।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ ছিল। শনিবার দেশে ভারতীয় পেঁয়াজের প্রথম চালানটি এসেছে। গত ২৮ ডিসেম্বর পেঁয়াজের ওপর থেকে ভারত সরকার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। এর ফলে শনিবার পর্যন্ত আমরা প্রায় ছয় হাজার টনের মতো পেঁয়াজের এলসি করেছি। ভারতীয় পেঁয়াজ দেশে আসা অব্যাহত থাকলে ২০ থেকে ২২ টাকার মধ্যে ক্রেতারা কিনতে পারবে।’

এদিকে, হিলি স্থলবন্দরের আড়তদার শাকিল আহমেদ, ফেরদৌস হোসেন জানান, আজ ভারত থেকে পেঁয়াজ আসছে এই খবর বাজারে ছড়িয়ে পড়ে। একদিনের ব্যবধানে দেশি পেঁয়াজ মানভেদে ৩০ থেকে ৩২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দুইদিন আগেও যেখানে ৩৬ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল। কেজিতে ছয় থেকে আট টাকা করে কমে গেছে। দাম আরও কমে আসবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ভারত সরকার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এর ফলে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকেরা মিয়ানমার, পাকিস্তান, মিশর, তুরস্ক ও চীন থেকে বিপুল পেঁয়াজ আমদানি করে। এরপর স্বাভাবিক হয়ে আসে পেঁয়াজের দাম।

এদিকে ভারতের রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ৭ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ। নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের প্রথম দিন শুক্রবার থাকায় শনিবার ভারতের মাহদীপুর স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশের সোনামসজিদ স্থলবন্দরে ৪ জন আমদানীকারকের সাতটি পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশ করে।

এর মধ্যে, সাদিয়া এন্টারপ্রাইজের একটি ট্রাক এবং টি.এম এন্টারপ্রাইজের ২ ট্রাক পেঁয়াজ রয়েছে।

এ ব্যাপারে সাদিয়া এন্টারপ্রাইজের প্রতিনিধি সাদিকুল ইসলাম জানান, তার ভারতীয় এক ট্রাকে ১৫ টন পেঁয়াজ সোনামসজিদ বন্দরে বিকেলে প্রবেশ করেছে। তিনি এসব পেঁয়াজ ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রির জন্য মোটামুটি ফায়সালা করেছেন।

এ ব্যাপারে পানামা পোট লিংক লিমিটেডের পোট ম্যানেজার মইনুল ইসলাম ৭ ট্রাক পেঁয়াজ শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বন্দরে প্রবেশ করেছে বলে নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, কাঁচামাল এবং প্রয়োজনীয় উপকরণ হওয়ায় দ্রুত এসব বন্দরে খালাস অব্যাহত রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দরের ম্যানেজার মাঈনুল ইসলাম জানান, শনিবার পেঁয়াজ এসেছে চারটি ট্রাকে। আরো বেশ কয়েকটি ট্রাক প্রবেশের জন্য ভারতের মহদিপুর স্থলবন্দরে অপেক্ষায় রয়েছে। গত ১৪ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রপ্তানির উপর নিষেধাজ্ঞা দেয় ভারত। এরপরই বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হয়ে যায়।

গত ২৮ ডিসেম্বর রপ্তানির নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রত্যাহার করে দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ওই আদেশ ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে।