নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়ায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া: ফার্মে আগুন ও দোকান ভাংচুর, এলাকায় উত্তেজনা

রাঙ্গুনিয়ায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধিঃ রাঙ্গুনিয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, গুলাগুলি, দোকান ভাংচুর ও গরুর ফার্ম পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের ছয়জন আহত হয়েছে দাবি করেছেন তাঁরা। তবে আহত কারো নাম পাওয়া যায়নি।

ঘটনার পর থেকে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) উপজেলার মরিয়মনগর ইউনিয়নে ঘটনা ঘটে।

রশিদিয়া পাড়া গ্রামে মসজিদের মাইকে প্রচার করে পূর্ব সৈয়দবাড়ী গ্রামে হামলার অভিযোগ করেছেন গ্রামবাসীরা।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, রশিদিয়া পাড়া গ্রামে বারেক নামে এক ব্যক্তির অটোরিক্সার কাঁচ ভাঙ্গার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া গুলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

পূর্ব সৈয়দবাড়ী গ্রামের মো. ইউসুফ নামে এক ব্যক্তি বলেন, ‘আমাদের এলাকায় এসে উচ্ছৃঙ্খল আচরণের কারনে রশিদিয়া পাড়া গ্রামের বারেককে সতর্ক করে দেয়ায় গ্রামের লোকজনকে ক্ষেপিয়ে হামলা চালায়। মসজিদের মাইকে প্রচার করে শত শত লোক জড়ো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে গ্রামে হামলা চালানো হয়। আমার দোকানসহ গ্রামের কয়েকটি দোকান ভাংচুর করে। আমার বড় ভাইয়ের গরুর ফার্মে এসে চারটি গরু লুট করে ফার্মে আগুন ধরিয়ে দেয়। অটোরিক্সার কাঁচ ভাঙ্গার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

রাঙ্গুনিয়ায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

পূর্ব রশিদিয়া পাড়া গ্রামের অটোরিক্সা চালক মো. বারেক তাঁর বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘বুধবার (২১ জুলাই) রাতে পূর্ব সৈয়দবাড়ী গ্রামের মো. ইউসুফ নামে এক ব্যক্তি তাঁর অটোরিক্সার সামনের কাঁচ ভেঙ্গে ফেলে। পরে এটা নিয়ে সালিশ মীমাংসা হওয়ার কথা। এর মধ্যে তাঁরা গন্ডগোল পাকিয়ে এত বড় ঘটনা ঘটায়।’

রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ঘআগুন নেভানো হয়েছে। অগ্নিকান্ডের কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অগ্নিকান্ডের কারন তদন্ত করে পরে বলা যাবে।’

রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মো,. মাহবুব মিল্কী বলেন, ‘এলাকায় অতিক্তি পুলিশ গেছে। ঘটনায় কেউ আহত হয়নি, কোনো গুলাগুলির ঘটনাও ঘটেনি। কেউ যদি থানায় অভিযোগ দেয় তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।’