নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়ায় তপু হত্যার বিচার দাবীতে বিক্ষোভ- “অপমৃত্যুর শেষ চাই, তপু হত্যার বিচার চাই”

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: ৫ বছরের এক শিশুর হাতে একটি ফেস্টুন। যেখানে লেখা রয়েছে “অপমৃত্যুর শেষ চাই, তপু হত্যার বিচার চাই” শীর্ষক একটি স্লোগান।

রোববার (১০ জানুয়ারি) বিকালে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পারুয়া ইউনিয়নে তপু মালাকার নামে এক যুবকের হত্যার বিচার দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধনে এসে এভাবেই প্রতিবাদ প্রকাশ করছিল শিশুটি। এছাড়া অপর একটি ব্যানারে লেখা ছিল “মাদক মুক্ত সমাজ চাই, তপু হত্যার বিচার চাই”।

এই ধরণের নানা স্লোগান সম্বলিত ব্যানার-ফেস্টুন হাতে কয়েক হাজার মানুষের সমাগম হয়েছিল পারুয়া ইউনিয়নের হাজারীহাট এলাকায় আয়োজিত মানববন্ধনে। সম্প্রতি পারুয়া ইউনিয়নের একটি পুকুর থেকে তপু মালাকার নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়৷

এটাকে পরিকল্পিত হত্যাকান্ড উল্লেখ করে অবিলম্বে হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান আন্দোলনকারীরা।

পারুয়া ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধন শেষে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পারুয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল। প্রধান অতিথি ছিলেন পারুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুর রহমান তালুকদার।

বক্তব্য দেন পারুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি একতেহার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. ইলিয়াছ তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য কাজী জহুরুল ইসলাম, উপজেলা জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিজয় সেন, উপদেষ্টা নারায়ণ চন্দ্র বিশ্বাস, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবুল হাশেম, পারুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মামুনুল ইসলাম, সদস্য কাঞ্চন চৌধুরী সানি, প্রচার সম্পাদক প্রবীর মহাজন, পারুয়া ইউনিয়ন কৃষক লীগের আহবায়ক নাজিম মোহাম্মদ লোকমান, সনাতন ধর্মীয় নেতা মাস্টার প্রকাশ শীল, মাস্টার দিলীপ দাশ, মিলন মালাকার, পলাশ মালাকার, ইউপি সদস্য আমিনুর রহমান, মো. হারুন, জয়শ্রী মল্লিক, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা ইমাম হোসেন ইমন প্রমুখ।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার পারুয়া ইউনিয়নের হাজারীহাট এলাকার একটি পুকুর থেকে তপু মালাকার (২৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের তিনদিন পর তাকে পাওয়া গিয়েছিল।

তপু মালাকার উপজেলার পারুয়া ইউনিয়নের সাহাব্দিনগর মালাকার পাড়া এলাকার পবন মালাকারের ছেলে।