নিউজটি শেয়ার করুন

রাউজানের ইট ভাটায় টানা দ্বিতীয় দিনের অভিযানে নয় লক্ষ টাকা অর্থদন্ড

রাউজান প্রতিনিধিঃ উচ্চ আদালতের নির্দেশনায় রাউজানে ইট ভাটায় টানা দ্বিতীয় দিনের মত যৌথ অভিযান পরিচালনা করেছেন জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদফতর।

পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসকের ইট পােড়ানো লাইসেন্সবিহীন অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে এনফোর্সমেন্ট ও উচ্ছেদ অভিযানের অংশ হিসেবে ৫ জানুয়ারী সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে পৌরসভার ওয়াহেদরখীলের মেসার্স মামুন ব্রিকস ইন্ডা., মেসার্স রুস্তম শাহ (র:) ব্রিকস ইন্ডা., মেসার্স মক্কা ব্রিকস ইন্ডা.কে ৩ লক্ষ টাকা করে অর্থদন্ড ও ডাবুয়া ইউনিয়নের মেলুয়া এলাকার মেসার্স পায়রা ব্রিকস ও মেসার্স মামুন ব্রিকস ইন্ডা. এর ১২০ ফুট চিমনী ছিদ্র করে চুল্লী গুড়িয়ে দেওয়া হয়।

উল্লেখিত ইটভাটাসমূহে প্রায় ২০ লক্ষ কাঁচা ইট ধ্বংস করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারজান হোসাইন। এই সময় উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম জেলা উপপরিচালক জমির উদ্দিন, সহকারী পরিচালক আফজারুল ইসলাম ও পরিদর্শক নূর হাসান সজীব। এছাড়া র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জেলা ও রাউজান থানা পুলিশ বাহিনী আইন-শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে সার্বিক সহায়তা প্রদান করেন।

চট্টগ্রাম জেলায় অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে জানান পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক জমির উদ্দিন।

উল্লেখ্য, গত ৪ জানুয়ারি সোমবার রাউজানে প্রথমদিনের অভিযানে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের চারা বটতল এলাকায় জিবিআই, এইট জিরো এইট ও বিবিসি নামক তিনটি ইট ভাটার চিমনীসহ সম্পূর্ণরূপে গুড়িয়ে দেওয়া হয়।