নিউজটি শেয়ার করুন

মামুনুল হক কান্ডে রাঙ্গুনিয়ায় আ.লীগ কর্মী খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২৪

নিহত আওয়ামী লীগ কর্মী মো. মুহিবুল্লাহ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়ার আওয়ামী লীগ কর্মী মো. মুহিবুল্লাহ (৫৪) খুনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই বিএনপি’র রাজনীতির সাথে জড়িত বলে জানা গেছে।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মাহবুব মিল্কী।

তিনি বলেন, “সর্বশেষ শুক্রবার রাতে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এই দুইজনসহ এখন পর্যন্ত ২৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।”

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত ৩ এপ্রিল রাত ৮টার দিকে হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে একটি রিসোর্টে নারীসহ ঘেরাওয়ের খবর ছড়িয়ে পড়লে রাঙ্গুনিয়ার কোদালায় একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন বিএনপি-জামায়াত ও হেফাজত নেতাকর্মীরা। মিছিল থেকে লাঠিসোটা নিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় যুবলীগ নেতা আবদুল জব্বার, দিলদার আজম লিটন ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহকে। আ.লীগ কর্মী মুহিবুল্লাহর মাথায় গুরুতর আঘাত করা হয়। পরে আহত অবস্থায় তাকে নগরীর পার্কভিউ হাসপাতালের ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৬ তারিখ রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে রাঙ্গুনিয়া থানায়।

মামলা দুটিতে বিএনপি-জামায়াতের কর্মী ও হেফাজত সমর্থক ৬৪জন এজাহার নামীয় এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০জনসহ মোট ২১৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

দুটি মামলাতেই এখন পর্যন্ত ২৪ জন গ্রেপ্তার হয়েছে বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।