নিউজটি শেয়ার করুন

মহেশখালীতে কুড়ালের দায়ের কোপে সৎ মা খুন, ঘাতক ছেলে পলাতক

ঘাতক

মহেশখালী প্রতিনিধি: মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের আঁধারঘোনা পূর্বগোদার পাড়া গ্রামে সৎ ছেলের কুড়ালের আঘাতে সৎ মা নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলার আঁধার ঘোনা গ্রামের গোদার পাড়ায় এ ঘটনাটি ঘটে।

২৪ এপ্রিল ভোরে সেহেরি খাওয়ার সময় কথাকাটির জের ধরে সৎ ছেলে আব্দুল হান্নানের কুড়ালের আঘাতে সৎ মা গুরতর আহত হয়। আহত মহিলাকে ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করালে চিকিৎসার অবনতি হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ মে রবিবার সকাল ১১ টার সময় মৃত্যু্রণ করেন।

নিহত মুরশিদা বেগম (৩৫), উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের আঁধারঘোনা গ্রামের মোহাম্মদ আকতার হোসাইনের ২য় স্ত্রী।

ঘাতক ছেলে হান্নান (২৫) ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

তবে ঘটনাটি পারিবারিক ঘটনা হওয়ায় স্থানীয় প্রভাবশালীরা চুপ থাকলে মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে স্থানিয় ইউপি সদস্যসহ নিরহ লোকজনকে হয়রানি করে আসামী করতে মাঠে নেমেছে চক্রটি বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানাগেছে।

সূত্র জানায়, উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের আঁধার ঘোনা গোদার পাড়া গ্রামের আকতার হোসাইন প্রথম স্ত্রীর মৃত্যুর পর দ্বিতীয় স্ত্রী বিয়ে করে। কিন্তু প্রথম স্ত্রীর ছেলের সাথে দ্বিতীয় স্ত্রী সৎ মায়ের সাথে প্রায় সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হত। ঘটনার ভোর রাতে তার সৎ মা মুরশিদার মাথায় কুড়ালের কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই আহত হলে পরবর্তীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রাণ হারান।

মহেশখালী থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হাই বলেন, সৎ ছেলে কুড়ালের আঘাতে এক মা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে বলে শুনেছি। এ বিষয়ে একটি মামলাও হয়েছিল। এটি হত্যা মামলা হিসাবে রুজু হয়ে যাবে।