নিউজটি শেয়ার করুন

বায়েজিদ বাইপাস সড়ক বন্ধ ঘোষণার পরও দর্শনার্থীদের আনাগোনা, দুর্ঘটনার শঙ্কা

বায়েজিদ বাইপাস সড়ক বন্ধ ঘোষণার পরও দর্শনার্থীদের আনাগোনা

জিয়াউল হক ইমন: বায়েজিদ বোস্তামী থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত চট্টগ্রামের প্রথম বাইপাস সড়কটিতে পাহাড় ধ্বসের আশঙ্কা থেকে ঝুঁকি এড়াতে আগস্ট মাস পর্যন্ত এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর ওমেন গেট থেকে প্রায় চার কিলোমিটার বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)।

বন্ধ করার পরও থামছে না দর্শনার্থীদের আনাগোনা। তাই রয়ে গেছে দুর্ঘটনার শঙ্কা।

সড়কটি বিনোদন স্পট হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে উঠায় এক পাশ বন্ধ রাখলেও ঠেকানো যাচ্ছে না দর্শনার্থীদের।

মঙ্গলবার (৮ জুন)  দুপুর থেকে এক পাশ বন্ধ করলেও বুধবার থেকে দুপাশ বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন সিডিএ কর্তৃপক্ষ।

পাহাড় ধ্বসের কারণ হিসাবে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অপরিকল্পিত কর্মকান্ডকে দুষছেন অনেকেই।

সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস সিপ্লাসকে জানান, পাহাড় ধ্বসের আশঙ্কা থেকে ঝুঁকি এড়াতে আগস্ট মাস পর্যন্ত এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর ওমেন গেট থেকে প্রায় চার কিলোমিটার বন্ধ বন্ধ রাখতে ইতোমধ্যে ট্রাফিক বিভাগ ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে চিঠি দিয়েছি।

উল্লেখ্য, নগরীর যানজট সমস্যা নিরসনে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) বাস্তাবায়নাধীন বায়েজিদ বোস্তামী থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত চট্টগ্রামের প্রথম বাইপাস সড়কটিতে ছোট-বড় মিলে ১৮টি পাহাড় রয়েছে। যেখানে পাঁচ থেকে ছয়টি পাহাড় ঝুঁকিপূর্ণ। ৩২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ৪ লেন বিশিষ্ট এই প্রকল্পের একাধিকবার মেয়াদ বৃদ্ধি করলেও সর্বশেষ ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত সময়সীমা ছিল। তবে এই সময়ের মধ্যেও কাজ শেষ হওয়া নিয়ে সংশয় আছে।

আরো বিস্তারিত দেখতে সিপ্লাসটিভির ইউটিউব লিংকে ক্লিক করুন…