নিউজটি শেয়ার করুন

পটিয়ায় ইফতার মাহফিলে চেয়ার ও মাইক ভাংচুর, হামলায় আহত ৩

পটিয়া প্রতিনিধি: পটিয়ায় ইফতার ও দোয়া মাহফিলে হামলায় তিনজন আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন- ছাত্রলীগ নেতা মো. শাহেদ (৩২), মো. ফোরকান (২২) ও জয় (১৮)।

রমজানের শেষ দিন বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় পটিয়া উপজেলার কোলাগাঁও ইউনিয়নের নলান্ধা গরীবুল্লাহ শাহ (রা:) মাজার গেইট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বুলবুল হোসেনের নেতৃত্বে এই হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ। তবে বুলবুল হোসেন অস্বীকার করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়ে অসুস্থ রয়েছেন। ইফতার ও দোয়া মাহফিলে কে বা কারা হামলা করেছে তা তিনি জানেন না।

ঢাকা বিশ্ববদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে এই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম।

জানা গেছে, কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলমের অনুসারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার ইফতার ও দোয়া মাহফিল করে। ওই সময় ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বুলবুলের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। এক পর্যায়ে ইফতার মাহফিলের চেয়ার ও মাইক ভাংচুর করা হয়।

কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা বদিউল আলম জানিয়েছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতারে তিনি প্রধান অতিথি ছিলেন।

তিনি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আগে স্থানীয় বুলবুলের নেতৃত্বে চেয়ার ও মাইক ভাংচুর করেছে বলে আয়োজকরা জানান।

বিষয়টি থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ শুক্কুর জানিয়েছেন, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বুলুবুলসহ নলান্ধা গ্রামের ৩জন ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত।

পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, ইফতার ও দোয়া মাহফিলে হামলার খবর শুনে কালারপুল পুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম ঘটনাস্থলে গেছেন। চেয়ার ও মাইক ভাঙচুরের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। তবে কারা হামলা করেছে তা জানেন না।