নিউজটি শেয়ার করুন

নগরীতে মদ ও গাঁজা নিয়ে বাবা-ছেলেসহ আটক ৮

নগরীতে গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে নারী চিকিৎসক আটক

আদালত প্রতিবেদক:  নগরীতে নিজের ঘৱে মদের আসর বসানোর অপরাধে চোলাই মদ ও গাঁজা নিয়ে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান প্রকাশ মদ মান্নান (৫৪) ও তার ছেলে মো. নোমান(২৬)সহ ৮ আটজন কে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

সোমবার (২৬ জুলাই) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডবলমুরিং থানার আদালত সেরেস্তা।

আটককৃত অন্যরা হলো- আল আমিন (৩০), মো. তাহের (২১), শহিদুল ইসলাম (২০), মো. সুমন (২৮), মো. ফয়সাল (২৮) এবং মো. হানিফ (২৫)।

আদালত সুত্রে জানা যায়, আব্দুল মান্নান তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। সে মূলত চোলাই মদ বিক্রয় করে। তার ছেলে নোমান আবার গাঁজা বেচে। বাবা-ছেলে লকডাউনে নিজ বাসাতেই মাদকের আসর বসিয়েছেন এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল গভীর রাতে ডবলমুরিং থানাধীন সুপারীওয়ালা পাড়াস্থ ফকির আহম্মদের বাড়ির আব্দুল মান্নানের ঘর থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ।

এসময় তাদের কাছ থেকে ২০ লিটার চোলাই মদ ও ৬০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মাদক মামলা রুজু করে আদালতে আনা হলে আদালত তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের নিদেশ দেয়।

আটক মান্নানের বিরুদ্ধে ১০ টি মামলা এবং তার ছেলে নোমানের বিরুদ্ধে থানায় ২ টি মামলা রয়েছে।