নিউজটি শেয়ার করুন

ছেলের জন্য লাইফ সাপোর্ট খুলে দিয়ে মা গেলেন পরপারে, ছেলের অবস্থাও সঙ্কটাপন্ন

ছেলের জন্য লাইফ সাপোর্ট খুলে দিয়ে মা গেলেন পরপারে

জিয়াউল হক ইমন: মা ছেলে দুজনই করোনাক্রান্ত। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি । মা আইসিইউতে ছেলে সাধারণ বেডে।কিন্তু করোনায় আক্রান্ত ছেলে শ্বাস নিতে পারছেন না শুনে আইসিউতে মুমুর্ষু অবস্থায় চিকিৎসাধীন মা ছেলের জন্য ছেড়ে দিয়েছিলেন লাইফ সাপোর্টের সরঞ্জাম। ফলে বাঁচলেন না মমতাময়ী মা।কিন্তু ছেলে এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে সেই আইসিইউ বেডে শুয়ে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার(২৮ জুলাই) চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউ ইউনিটে।

মঙ্গলবার দুপুরে মারা যান করোনায় আক্রান্ত মা। এর আগে তিনি আইসিইউ বেডে থাকা অবস্থায় শুনতে পান তার ছেলের শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। এই খবর শুনে মা লাইফ সাপোর্টের সরঞ্জাম খুলে ফেলেন এবং ইশারায় তার ছেলেকে আইসিইউতে আনতে  চিকিৎসকদের অনুরোধ জানান। বাধ্য হয়ে তাকে নামিয়ে ছেলেকে তোলা হয় বেডে। কিন্তু দুপুরেই মারা যান মা।

ছেলের জন্য লাইফ সাপোর্ট খুলে দিয়ে মা গেলেন পরপারে

বুধবার(২৯জুলাই) রাতে আইসিইউর দায়িত্বরত আবাসিক চিকিৎসক  ডা. তানজিম বিষয়টি নিশ্চিত করে সিপ্লাসকে বলেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মা ও ছেলে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। মঙ্গলবার(২৭ জুলাই) দুপুরেই মারা যান মা। বর্তমানে ছেলেও মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এই রিপোর্ট লেখার সময় (বুধবার রাত ১২.৫৫) ছেলে শিমুল আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন। তার অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। ছেলেটির অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৪০ শতাংশ।

ছেলের জন্য লাইফ সাপোর্ট খুলে দিয়ে মা গেলেন পরপারে

ডা. তানজিম জানান, করোনায় মারা যাওয়া সেই মায়ের নাম কানন প্রভা পাল এবং ছেলের নাম শিমুল পাল। তারা নগরীর দিদার মার্কেট এলাকার সিএন্ডবি কলোনীতে থাকতেন।

এই ধরণের ঘটনা এখন প্রায় ঘটছে। আজ বোয়ালখালীতে বাবা ছেলের মৃত্যু সারাদিন আলোচনায় ছিলো।

তিনি জানান, ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫জন মারা গেছেন। এমুহুর্তে সেখানে করোনা আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন আছেন ১৬৫ জন।

উল্লেখ্য, বুধবার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১হাজার ৩১৫ জন এবং এই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরও ১৭ জন।