নিউজটি শেয়ার করুন

চুয়েটে কর্মচারী ভবনে অগ্নিদগ্ধ কর্মচারীর স্ত্রী নিহত

 চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মচারীর আবাসিক ভবনে সংগঠিত অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আইরিন আক্তার (২৫) মারা গেছেন।
মঙ্গলবার(২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬ টায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বার্ন ইউনিটে নেওয়ার পথে কুমিল্লা অতিক্রম করা কালে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
চুয়েট স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনে সাধারণ সম্পাদক মাসুদ হোসেন রুবেল ঘটনার সত্যাতা নিশ্চিত করে জানান , আজ মঙ্গলবার সকাল নয়টার দিকে চুয়েটের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী ভবনে রান্না করার সময় অসাবধানতা বশত গ্যাসের চুলার আগুন কাপড়ে লেগে যায়।
এতে আইরিন মুখমণ্ডলসহ শরীরে অধিকাংশ দগ্ধ হন। তাকে উদ্ধার করে চুয়েট মেডিক্যালে নেওয়া হলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।
চুয়েট মেডিক্যালে দায়িত্বরত চিকিৎসক জামিলা হক জানান, সকাল নয়টার আইরিন আক্তার নামে এক কর্মচারীর স্ত্রীকে নিয়ে আসেন। তার শরীরের ৬০ শতাংশ পুড়ে গেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করি।
উল্লেখ্য, নিহত আইরিন আক্তার চুয়েটের ১৬তম গ্রেডের কর্মচারী (চালক) মো. ইব্রাহীমের স্ত্রী। মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও আইরিন আক্তারের সংসার জীবনে ৬ বছর বয়সী এক কন্যা সন্তান রয়েছে।
জানা যায়, নিহত আইরিনের লাশ চাঁদপুরের ভোলাখাল থানায় মো. ইব্রাহিমের গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বুধবার জায়নাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।