নিউজটি শেয়ার করুন

চট্টগ্রামে ১১ প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা

চট্টগ্রামে ১১ প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা

সিপ্লাস প্রতিবেদক: নকল এনার্জি ড্রিঙ্ক, মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্য পণ্য, টিসিবির জন্য বরাদ্দকৃত তেল বিক্রি, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পানি উৎপাদন এবং মেয়দোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি কারায় নগরীর ১১ প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বুধবার(১৪ জুলাই) নগরীর বায়েজিদ, পাঁচলাইশ, বাকলিয়া, ইপিজেড ও পতেঙ্গা এলাকায় অভিযানে এই জরিমানা করা হয়।

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা ও এপিবিএন ৯ এর সহায়তায় এসব অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ফয়েজ উল্যাহ, সহকারী পরিচালক নাসরিন আক্তার, সহকারী পরিচালক(মেট্রো) পাপিয়া সুলতানা লীজা ও চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।

অভিযানে বায়েজিদের অক্সিজেন মোড় এলাকার রেজিস্ট্রেশন বিহীন, মেয়াদোত্তীর্ণ ও কাটা ওষুধ রাখায় ৩০ হাজার টাকা, নিষিদ্ধ বিদেশী ওষুধ রাখায় পশ্চিম শহীদ নগর এলাকার সালমা ফার্মেসীকে ২৫ হাজার টাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ চকলেট রাখায় একই এলাকার হক ফুডসকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মুরাদপুর এলাকার আসমা আল মদিনা ফার্মেসিকে ১৫ হাজার টাকা, বাকলিয়ার সৈয়দ শাহ রোড এলাকার ইভাইন ড্রিংকিং ওয়াটারকে ১লাখ টাকা, বন্দরটিলা এলাকার হক ফার্মেসিকে ৫ হাজার টাকা, ফুলকলিকে ২০ হাজার টাকা, পতেঙ্গা এলাকার সাঈদ স্টোরকে ১৭ হাজার টাকা, সিমেন্ট ক্রসিং এলাকার সুমাইয়া ফার্মেসিকে ৩ হাজার টাকা, লালমিয়া স্টোরকে ১৫ হাজার টাকা, হক ফার্মেসিকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ক্রেতারা পণ্য কেনার সময় প্রতারিত হলে অধিদপ্তরের হট লাইন নম্বর ১৬১২১-এ অভিযোগ জানাতে অনুরোধ করা হয়।