নিউজটি শেয়ার করুন

চট্টগ্রামে হোটেল বুকিংয়ের নামে অভিনব কায়দায় ইয়াবা পাচার: স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজন কারাগারে

চট্টগ্রামে হোটেল বুকিংয়ের নামে অভিনব কায়দায় ইয়াবা পাচার

সিপ্লাস প্রতিবেদক: কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ইয়াবা এনে অভিনব কায়দায় হোটেল বুকিং নিয়ে চট্টগ্রাম নগরীসহ বিভিন্ন জেলায় ইয়াবা পাচারের অভিযোগে স্বামী-স্ত্রী ও দেবর পরিচয়ে তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

আটককৃতরা হলেন- কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন নাটমুরাপাড়া এলাকার মোঃ সোনা মিয়ার স্ত্রী রেহেনা আক্তার (৩৫) ও তার স্বামী কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন নাটমুরাপাড়া এলাকার মৃত বদিউল আলমের ছেলে মোঃ সোনা মিয়া (৪১) এবং একই এলাকার বছির আহমদের ছেলে মাজাহারুল ইসলাম (৪৯)।

রোববার(১৮ জুলাই) সকালে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। নিশ্চিত করেন কোতোয়ালী থানার আদালত সেরেস্তা।

আদালত সুত্রে জানা যায়, শনিবার(১৭ জুলাই) বিকালে নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন লালদিঘীর পশ্চিম পাড়স্থ হোটেল লালদিঘী নামের একটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে স্বামী-স্ত্রী ও দেবরসহ ৩ জনকে আটক করে কোতোয়ালী থানা পুলশ।

এসময় তাদের কাছ থেকে ৮৫০ পিস ইয়াবাসহ উদ্ধার করা হয়।

পরে তাদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থীনায় মাদক মামলা দায়ের করা হয়। আদালতে আনা হলে আদালত জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয়।

মূলত: আসামীরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে, ইয়াবাগুলো কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থেকে ক্রয় করে চট্টগ্রাম আনে এবং বাইরের জেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের চট্টগ্রাম আসতে বলে। তারা একটি হোটেলে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে হোটেলে রুম বুকিং নেয়। এরপর রুমে এসে বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা আত্মীয়-স্বজন পরিচয় দিয়ে কৌশলে ইয়াবা ক্রয় করে নিয়ে যায় বলে স্বীকার করে।

আরও জানা যায়, আটক রেহেনা আক্তারের বিরুদ্ধে সিএমপি’র বায়েজিদ বোস্তামী থানায় মাদকদ্রব্য আইনে ১টি মামলা, মোঃ সোনা মিয়ার বিরুদ্ধে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানায় ১টি মামলা ও সিএমপি’র চাঁন্দগাও থানায় মাদকদ্রব্য আইনে ১টি মামলাসহ মোট ২টি মামলা আছে।