নিউজটি শেয়ার করুন

চট্টগ্রামে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযান: ৬প্রতিষ্ঠানকে ৯৩হাজার টাকা জরিমানা

সিপ্লাস প্রতিবেদক: নগরীতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন অপরাধে ৬টি প্রতিষ্ঠানকে ৯৩হাজার টাকা জরিমানা করেছে।

রোববার (১০ জানুয়ারি) নগরীর পাঁচলাইশ, হালিশহর, ডবলমুরিং ও বন্দর থানা এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

এপিবিএন ৯ ও  মধ্যম হালিশহর ফাঁড়ি পুলিশের সহায়তায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন অধিদফতরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ্, সহকারী পরিচালক (মেট্রো) পাপীয়া সুলতানা লীজা ও চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।

অভিযানে ৬টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় ৯৩ হাজার টাকা প্রশাসনিক জরিমানা করা হয়েছে। মেয়াদোত্তীর্ণ কেক, জেলিযুক্ত চিংড়িং, অননুমোদিত রং ও অনিবন্ধিত ওষুধ ধ্বংস করা হয়।

মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, পাঁচলাইশ থানার সানমার ওশান সিটির মম’স ইয়াম ফাস্টফুডকে অননুমোদিত ফ্লেভার ও রং ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন, একই ফ্রিজে কাঁচা মাংসের সঙ্গে রান্না করা খাদ্য সংরক্ষণ করায় ৮ হাজার টাকা জরিমানাসহ অননুমোদিত রং ও ফ্লেভার ধ্বংস করা হয়। কিংস বার্গারকে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন ও একই ফ্রিজে কাঁচা মাংসের সঙ্গে অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

হালিশহর থানার রূপসা ফুডকে উৎপাদিত খাদ্যপণ্য ময়লাযুক্ত স্থানে সংরক্ষণ করা, দই ও ফিরনিতে উৎপাদনের তারিখ ও মেয়াদ না দেওয়ায় ২০ হাজার টাকা, ডবলমুরিং থানার দেওয়ানহাট মোড়ের নেহা ফার্মেসিকে অনিবন্ধিত ওষুধ সংরক্ষণ করায় ১৫ হাজার টাকা, নিউ মডেল ফুড অ্যান্ড ডিপার্টমেন্টাল শপকে মোড়কে ৮০০ গ্রাম লিখে ৭০০ গ্রাম বিস্কুট দেওয়া এবং মেয়াদোত্তীর্ণ কেক সংরক্ষণ করায় ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বন্দর থানার কলসি দীঘির পাড় বাজারের রফিকুলের মাছের দোকানকে জেলিযুক্ত (সিলিকা জেল) চিংড়ি বিক্রয় করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানাসহ প্রায় ৩২ কেজি জেলিযুক্ত চিংড়ি ধ্বংস করা হয়।

জনস্বার্থে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।