নিউজটি শেয়ার করুন

গলায় ছুরিকাঘাত করে গৃহবধূকে হত্যা

সিপ্লাস ডেক্স: শেরপুর জেলা শহরের কসবা মোল্লাপাড়া এলাকায় বাসায় ঢুকে এক গৃহবধূকে গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত সুরভী আক্তার (৩০) জেলার শ্রীবরদী উপজেলার ভাটি লঙ্গরপাড়া গ্রামের সেনা সদস্য নাজিম আহমেদের স্ত্রী। বর্তমানে তিনি সাউথ সুদানে জাতিসংঘ মিশনে কর্মরত রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার চরশেরপুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের শফিউল্লাহর মেয়ে সুরভীর সঙ্গে এক যুগ আগে নাজিমের বিয়ে হয়। তিন বছর আগে কসবা মোল্লাপাড়া এলাকায় জমি কিনে হাফ বিল্ডিং বাসা করেন নাজিম। তাদের দু’টি কন্যা সন্তান রয়েছে। এক বছর আগে মিশনে যান নাজিম। তখন থেকে স্ত্রী সুরভী দুই মেয়েকে নিয়ে বাসায় থাকতেন।

পুলিশ জানায়, বুধবার রাত ১১টার দিকে হঠাৎ করে সুরভীর বাসার বিদ্যুৎ চলে যায়। এসময় তিনি ঘরের বাইরে এসে পাশের বাড়ির এক শিক্ষককে ঘটনাটি জানান। পরে বিদ্যুতের লাইনে সমস্যা হয়েছে, রাতে বিদ্যুৎ আসবে না এমন ভেবে তিনি সন্তানদের ঘুমিয়ে পড়তে বলেন। বৃহস্পতিবার সকালে তার দুই মেয়ে ঘুম থেকে উঠে মাকে ঘরে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। পরে ঘরের বাইরে এসে দেখতে পায় উঠানে উপুর হয়ে মায়ের লাশ পড়ে রয়েছে। এসময় দুই মেয়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে লাশ দেখে থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমসহ সিআইডি, পিবিআই ও ডিবির কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

শেরপুর সদর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে মনে হয়েছে, দুর্বৃত্তরা বিদ্যুতের সংযোগ কেটে ওয়াল টপকে বাড়িতে প্রবেশ করে। পরে গলায় ছুরিকাঘাত করে গৃহবধূকে হত্যা করে চলে যায়। তবে মৃত গৃহবধূর গলায় সোনার চেইন অক্ষত রয়েছে। বাড়িতে অন্যকোন কিছু খোয়া যায়নি। তাই ঘটনাটি বেশ রহস্যজনক। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ তদন্তে নেমেছে। আশা করছি খুব দ্রুত হত্যার রহস্য বেরিয়ে আসবে।