নিউজটি শেয়ার করুন

কোভিড-১৯: যুক্তরাষ্ট্রে টিকা নিয়েছেন এক কোটিরও বেশি লোক

সিপ্লাস ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের একটি কোটিরও বেশি নাগরিক করোনাভাইরাস টিকা নিয়েছেন বলে দেশটির সেন্টারস্ ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে।

বুধবার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র এক কোটি দুই লাখ বাসিন্দাকে টিকা দিতে পেরেছে বলে জানিয়েছে তারা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এক বছর বয়সী মহামারীটি দেশজুড়ে বিনাবাধায় নিজের অস্তিত্ব জাহির করার মধ্যেই এই অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে।

সাফল্যের এই মাইলফলক পার হওয়ার আগের দিন মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্র একদিনে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড গড়েছে, এদিন চার হাজার ৩৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে রয়টার্সের টালি জানাচ্ছে।

মঙ্গলবার সিডিসি ও প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন কাদের প্রথমে টিকা দেওয়া উচিত সে বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যগুলোকে নতুন দিকনির্দেশনা দিয়েছে। স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের সারির প্রথমে রাখার কঠোর নিয়মের কারণে টিকা দান কর্মসূচীর গতি মন্থর হয়ে পড়েছিল, তাই রাজ্যগুলোকে এখন ৬৫ বছরের বেশি বয়সী সবাইকে টিকা দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ও মানবিক সেবা মন্ত্রী আলেক্স আজার মঙ্গলবার জানিয়েছেন, জরুরি ব্যবহারের জন্য যে দুটি টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে প্রশাসন সেগুলোর সব মজুদ ছেড়ে দিচ্ছে, যার মধ্যে সূচী অনুযায়ী দ্বিতীয় ডোজ নিশ্চিত করার জন্য সংরক্ষিত রাখা কিছু টিকাও আছে।

মর্ডানা ও জার্মানির অংশীদার বায়োএনটেকের সঙ্গে মিলে ফাইজারের তৈরি করা টিকার প্রায় তিন কোটি ডোজ যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যগুলোকে দেওয়া হয়েছে। এ পর্যন্ত রাজ্যগুলো তার মাত্র এক-তৃতীয়াংশ ব্যবহার করতে পেরেছে।

বুধবার ওষুধ কোম্পানি জনসন এন্ড জনসন (জেএন্ডজে) জানিয়েছে, তারা তাদের একক ডোজের করোনাভাইরাস টিকা মার্চে ছাড়ার পথে রয়েছে।

মঙ্গলবার রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জনসন এন্ড জনসনের নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. পল স্টফেলস জানিয়েছেন, চলতি বছরের শেষে জেএন্ডজে টিকার একশ কোটি ডোজ সরবরাহ করতে পারবে বলে আশা করছে।