নিউজটি শেয়ার করুন

ঈদের ছুটি শেষ, চট্টগ্রামসহ সারাদেশে খুলেছে অফিস

সিপ্লাস ডেস্ক: পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তিন দিনের ছুটি শেষ হয়েছে গতকাল শনিবার (১৫ মে)। আজ রবিবার (১৬ মে) থেকে খুলেছে অফিস। পাশাপাশি খুলেছে ব্যাংক-বিমা এবং শেয়ারবাজারও।

বৃহস্পতিবার (১৩ মে) থেকে তিন দিনের সরকারি ছুটি শুরু হয়। শুক্রবার (১৪ মে) পালিত হয় ঈদুল ফিতর। সাধারণ নিয়মানুযায়ী, রমজান মাস ২৯ দিনে হিসাব করে ঈদুল ফিতরের ছুটি নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু এবার করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে মানুষকে কর্মস্থলে রাখতে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) থেকে ছুটি ঘোষণা করে সরকার।

প্রতি বছর ২৯ রোজার দিনে ঈদের ছুটি থাকলেও এ বছর করোনা সংক্রমণের কারণে মানুষেকে কর্মস্থলে রাখতে সেই ছুটি দেওয়া হয়নি। আর গণপরিবহন বন্ধ থাকায় মানুষ ব্যক্তিগত যানবাহনে ফিরেছেন বাড়ি।

ঈদের ছুটি শেষে রবিবার সকাল থেকেই অফিসে যোগ দেন কর্মজীবীরা। অফিস শুরু হলেও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি তুলনামূলক কম।

ঈদের পর প্রথম কর্মদিবসে রোববার প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু সচিবালয়ে ঈদের আমেজ লক্ষ্য করা গেছে। কর্মকর্তারা-কর্মচারীরা অনেকেই এসেছেন পাঞ্জাবি-পাজামা পরে। অন্য ঈদে কোলাকুলি করতে দেখা গেলেও এবার শুধু কুশল বিনিময় এবং ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা যায়।

এদিকে চট্টগ্রামের বিভিন্ন সরকারী অফিসেও এখনো ঈদের আমেজ। খোলারদিনে অফিসগুলোতে অনেকেই অনুপস্থিত রয়েছেন।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে চলমান বিধিনিষেধে সীমিত পরিসরে খোলা থাকছে ব্যাংক। রবিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলবে লেনদেন। এর পরবর্তী আনুষাঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করতে ব্যাংক খোলা থাকবে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত। আর দেশের শেয়ারবাজারে লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত।

বিভিন্ন সরকারী অফিসে দেখা গেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিজ নিজ দপ্তর এবং টেবিলে বসে কাজ করছেন। তবে কাজের চাপ অনেকটাই কম। ছুটি শেষে প্রথম কর্মদিবসে সচিবালয়ে তেমন ভিড় নেই। মহামারির কারণে দর্শনার্থী প্রবেশও বন্ধ। এজন্য অনেকটাই ফাঁকা সচিবালয়।

অন্যদিকে করোনা সংক্রমণ রোধে আগামী ১৭-২৩ মে লকডাউন দেওয়া হবে। তার প্রজ্ঞাপন জারি হবে রোববার।