নিউজটি শেয়ার করুন

ইউপি সদস্যের কার্যালয় থেকে লাশ উদ্ধার: আটককৃতদের ৫দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

ইউপি সদস্যের কার্যালয় থেকে লাশ উদ্ধার আটক ৩

সিপ্লাস আদালত প্রতিবেদক: কর্ণফুলী উপজেলার ইছানগরে নারী ইউপি সদস্যের অস্থায়ী কার্যালয়ে রাজমিস্ত্রি নুরুল আলমের (৪৫) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ঘটনায় ইউপি সদস্য আছিয়া বেগমসহ গ্রেফতারকৃত তিনজনের বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন কর্ণফুলী থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই)  আদালতের মাধ্যমে রিমান্ড শুনানী জন্য আসামীদের বিরুদ্ধে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন বলে জানান কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ।

এদিকে কর্ণফুলী থানার আদালত সেৱেস্তা এএসআই মনি আক্তার বলেন, আমাদের কাছে এখনো পযন্ত রিমান্ড দরখাস্ত এসে পৌঁছে নেই। রিমান্ড আবেদন আমাদের হাতে আসলে রিমান্ড শুনানীর জন্য পাঠানো হবে।

এই ঘটনায় এর আগে নিহত নুরুল আলমের পুত্র নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ইউপি সদস্যের ভাতিজা কোরবান আলীকে প্রধান করে ৪ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছিলেন। এদের মধ্যে নাছির আহমদ নামে একজন আসামী পলাতক রয়েছেন।

এ মামলায় আগে থেকে গ্রেপ্তার তিন আসামিরা হলেন, ইউপি সদস্যা আছিয়া বেগম (৫৫), তার ভাই নাছির আহমদ (৬০) ও মো. পারভেজ (২৩)। গত ১৪ জুলাই বুধবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত আসামিদেরকে মেট্রোপলিন আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণে করা হয়েছিল।

এদিকে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ আরও জানান, এটা খুন না আত্মহত্যা তা নিয়ে সন্দেহ করা হচ্ছে। পুলিশের তদন্তও অব্যাহত রয়েছে এবং পলাতক আসামি নাছিরকেও গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহতও রয়েছে।