নিউজটি শেয়ার করুন

আনোয়ারায় ঈদের পছন্দের জামা না পেয়ে অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

আনোয়ারা প্রতিনিধি : ঈদে পছন্দের জামা না পেয়ে মা-বাবার সঙ্গে অভিমান করে সাইমা সুলতানা (১৪) নামের এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার (৩মে) বিকেলের দিকে আনোয়ারা উপজেলার বটতলী ইউনিয়নের চাঁপাতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইমা চাঁপাতলী গ্রামের আইয়ুব আলীর মেয়ে ও চারপীর আউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী ছিলেন৷

স্থানীয় ও পরিবার সুত্রে জানা যায়, নিহত সাইমার মা ফেরি করে পাড়া মহল্লায় কাপড় বিক্রি করে। তারমধ্যে সাইমা ঈদে নতুন কাপড় নেওয়ার জন্য মায়ের কাছে আবদার করলে তার জন্য তিনটি কাপড় নিয়ে দর্জির কাছে সেলাই করতে দেই৷ কিন্তু সাইমার পছন্দ মার্কেটে আসা দামী নতুন জামা। মার্কেট থেকে নতুন জামা নিয়ে দিতে মায়ের কাছে আবদার করলে তাকে জামাটি কিনে না দেওয়ায় অভিমান করে সোমবার বিকেলে সাইমা নিজের ঘরে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

নিহত সাইমার মা বলেন, আমি সকালে ফেরি করে পাড়া মহল্লায় কাপড় বিক্রি করতে বের হয় এবং তার বাবা বাহিরে থাকায় পুরো বাড়ি ফাঁকা ছিল। এসময় বিকেলের দিকে সাইমা ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার জানান, ঈদে পছন্দের জামা না পেয়ে মা-বাবার সঙ্গে অভিমান করে সাইমা নামের এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যার বিষয়টি পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে।

তবে পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।