নিউজটি শেয়ার করুন

আইসোলেশনে মৃত নারীর দাফনে কবর খুঁড়লেন পুলিশ কর্মকর্তা

সিপ্লাস ডেস্ক: ২৫০ শয্যা চাঁদপুর সদর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ৪০ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই নারী মারা যান। রাতে হাজীগঞ্জে শ্বশুরবাড়ির কবরস্থানে লাশ দাফন করতে গেলে গ্রামবাসী বাধা দেয়। পরে চাঁদপুরের একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তার সহায়তায় রাত সাড়ে ৩টার দিকে তার দাফন হয়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ও করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন সুজাউদ্দৌলা রুবেল বলেন, গতকাল রাত ৮টার দিকে জ্বর, গলাব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসেন ওই নারী। অবস্থা খারাপ দেখে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। ঘণ্টা দেড়েক পর তিনি মারা যান।

চাঁদপুর জেলার সিভিল সার্জন মো. সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, ওই নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা জানার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

ওই নারীর স্বজন ও পুলিশ জানায়, গতকাল রাত ১২টার দিকে ওই নারীর লাশ হাজীগঞ্জ উপজেলায় তার শ্বশুরবাড়ির কবরস্থানে দাফন করার জন্য নেওয়া হয়। তখন গ্রামবাসী বাধা দেয়। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঘটনাস্থলে যান চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ ও কচুয়া সার্কেল) আফজাল হোসেন। তিনি নিজেই কবর খুড়েন। লাশ দাফনের ব্যবস্থা করেন।

এ সময় তার সাথে ছিলেন হাজীগঞ্জ থানার এসআই জয়নাল আবেদীন, সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম সিফাত ও ইসলামী আন্দোলনের দাফন-কাফন টিমের প্রধান মাওলানা জোবায়ের আহমেদ।