cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

ক্রাইস্টচার্চে তিন বাংলাদেশি নিহত ও আহত দুই, খোঁজ নেই তিনজনের

1st Image

সিপ্লাস ডেস্ক (২০১৯-০৩-১৫ ০৪:১৩:০৩)

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ঘটনায় তিন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি দূতাবাস থেকে পাঠানো এক প্রেসরিলিজে তিনজন নিহতের খবর জানানো হয়েছে। এদিকে অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত (নিউ জিল্যান্ডেরও দায়িত্বপ্রাপ্ত) বাংলাদেশি হাইকমিশনার মো. সুফিউর রহমান জানান, এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুই জন। হামলার ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন আরও তিন বাংলাদেশি।  

শুক্রবার (১৫ মার্চ) দুপুরে ফোনে হাইকমিশনার জানান, ‘বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছ থেকে জানতে পেরেছি দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। তারা হলেন ড. মো. আবদুস সামাদ, যিনি একজন অ্যাগ্রোইকোনোমিস্ট (কৃষি অর্থনীতিবিদ) এবং আরেকজন হলেন মিসেস হোসনে আরা বেগম, যিনি ড. ফরিদের স্ত্রী। এছাড়া আরও দুইজন আহত অবস্থায় রয়েছে। তিনজন এখনও নিখোঁজ। নিখোঁজদের মধ্যে ড. সামাদের স্ত্রীও রয়েছেন। ওই মসজিদে তারা নামাজ পড়ছিলেন।’ নিউ জিল্যান্ডের সরকার বা পুলিশের পক্ষ থেকে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশি দূতাবাসকে কিছু জানায়নি বলেও তিনি উল্লেখ করেন। পরে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে আরেকজনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়। তবে একজনের পরিচয় জানা যায়নি। 

হাইকমিশনার আরও জানান, ‘আমাদের অনারারি কাউন্সেল আগামীকাল ক্রাইস্টচার্চ পৌঁছাবেন। আমাদের ক্রিকেট টিম যাতে নির্ধারিত সময়ের আগেই চলে যেতে পারে সেজন্য আমরা যোগাযোগ করছি।'

তিনি বলেন, ‘আমরা নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশি কমিউনিটিকে বলেছি তারা যেন শান্ত থাকেন, ঘরে থাকেন, বড় ধরনের কোনও সমাবেশ এড়িয়ে চলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নির্দেশ মেনে চলেন।’

নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন জানিয়েছেন, মসজিদে হামলার ঘটনায় ৪০ জন নিহত হয়েছেন।

আজ শুক্রবার (১৫ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চের হাগলি ওভালে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্ট খেলতে নামার কথা ছিল সেদেশে অবস্থানকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের। হাগলি ওভালের খুব কাছেই আল নূর মসজিদে আজ শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে সন্ত্রাসী হামলা হয়। অনুশীলন শেষ করে ওই মসজিদে জুমার নামাজ আদায়ে যান বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। মসজিদে খেলোয়াড়দের প্রবেশের মুহূর্তে স্থানীয় এক নারী তাদের ভেতরে ঢুকতে নিষেধ করেন। মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার কথা জানান তিনি। ফলে আতঙ্কিত হয়ে স্টেডিয়ামে ফিরে যান খেলোয়াড়রা।