cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

মার্কিন পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস গ্রেপ্তার

2018-07-12 03:17:06
1st Image

সিপ্লাস ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার দাবি জানিয়ে আসা পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।
বুধবার ওহাইওর কলম্বাস শহরের একটি স্ট্রিপ ক্লাব থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে এক টুইটে জানিয়েছেন আইনজীবী মাইকেল অ্যাভেনাতি, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

স্টেজে থাকার সময় এক ক্রেতাকে তাকে স্পর্শ করার অনুমতি দেওয়ায় জন্য ড্যানিয়েলসকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে দাবি করেছেন তিনি। ছদ্মবেশে চালানো এক অভিযানে ড্যানিয়েলসকে গ্রেপ্তার করা হয় বলেও জানিয়েছেন তিনি।

‘সাজানো ঘটনার মাধ্যমে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিভাবে’ ড্যানিয়েলসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে অভিযোগ অ্যাভেনাতির।

“এটা বেপরোয়াভাবের ধারাবাহিকতা। সব ভুয়া অভিযোগের বিরুদ্ধে লড়াই করবো আমরা,” টুইটে বলেছেন তিনি।

বুধ ও বৃহস্পতিবার ড্যানিয়েলের সাইরেন জেন্টলম্যান’স ক্লাবে পারফর্ম করার বিষয়টি নির্ধারিত ছিল বলে ক্লাবটির ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য থেকে জানা গেছে।

স্পর্শ করার অনুমতি দেওয়ায় তার মক্কেলের বিরুদ্ধে অপকর্মের অভিযোগ আনা হতে পারে জানিয়ে অ্যাভেনাতি বলেছেন, তিনি তার মক্কেলকে জামিনে ছাড়িয়ে আনতে পারবেন বলে আশা করছেন।

২০০৬ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন স্ট্রমি ড্যানিয়েলস, যার প্রকৃত নাম স্টিফানি ক্লিফোর্ড। ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কয়েকদিন আগে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী মাইকেল কোহেন ওই ঘটনা গোপন রাখার শর্তে তাকে এক লাখ ৩০ হাজার ডলার দিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

ড্যানিয়েলকে অর্থ দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন কোহেন।

মে মাসে ট্রাম্প দাবি করেন, তার সঙ্গে যৌন সম্পর্কের ‘মিথ্যা ও জালিয়াতিপূর্ণ অভিযোগ’ জানানো বন্ধ করার জন্যই ড্যানিয়েলকে অর্থ দেওয়া হয়েছিল। এই পর্ন তারকার সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্ক থাকার কথা জোরালোভাবে অস্বীকার করেছেন তিনি।

এ পর্যন্ত ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করেছেন ড্যানিয়েলস। এর একটি ২০১৬-র নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে অক্টোবরে এক লাখ ৩০ হাজার ডলারের বিনিময়ে তথ্য গোপন রাখার একটি চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসা আর্জি জানিয়ে আর অপরটি মানহানির অভিযোগ জানিয়ে।