cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

চট্টগ্রাম হবে যানজট, জলবদ্ধতামুক্ত সৌন্দর্য্যের নগরী : সিটি মেয়র

ভাড়াটিয়াদের বর্ধিত ঘর ভাড়া না দেয়ার আহ্বান মেয়রের

2018-01-09 10:00:41
1st Image

জিয়াউল হক ইমন : চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন, বছর শেষে কোন কারণ ছাড়া বাড়ী ভাড়া বাড়ানো সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও অন্যায়। যেহেতু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামে পৌরকর বাড়াননি, সেহেতু বাড়ী বাড়া বৃদ্ধি মেনে নেওয়া যায়না। ফলে নগর বাসীকে বর্ধিত ভাড়া না দেওয়ার আহ্বান জানান নগর পিতা।
মঙ্গলবার সিটি করপোরেশন ভবনে সিপ্লাসের সাথে একান্ত সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন তিনি।
মেয়র আরো বলেন, যানযটের কারনে অর্থ নষ্ট হয়, কর্মঘন্টা নষ্ট করে এবং বিরক্তির উদ্রেক ঘটে। তাই যানযট নিরসনে আমরা পরিকল্পনা নিয়েছি। যার সুফল ২০১৮ সালের মধ্যে নগরবাসী শতভাগ পাবে। চট্টগ্রাম শহরে কোন পার্কিং নেই। আমরা শহরের সর্বত্র পার্কিংয়ের জন্য মার্কিং করছি।ফলে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং না করে নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি পার্কিং করলে যানযট অনেকাংশে কমে যাবে। শহর জুড়ে আধুনিক দৃষ্টি নন্দন যাত্রী ছাউনি হবে যেখানে নগরবাসী গাড়ীর জন্য অপেক্ষার সময় বসতে পারবে। এটার সুফলও নগরবাসী এ বছরের মধ্যেই পাবে। যত্রতত্র ভ্যানের মাধ্যেমে রাস্তা দখল করে ব্যবসাও বন্ধ করা হবে।
তিনি বলেন, যেহেতু নগরবাসী আমাদের ভুল বোঝে সেহেতু আমরা নিজেরা নিজেদের দায়িত্ব নিয়ে, অবৈধ অটোরিকশা, সিএনজিসহ নগরীর সকল অবৈধ স্থাপনার বিরুদ্ধে আমাদের চসিকের ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যেমে অভিযান পরিচালনা করব। এতে কোন ছাড় দেওয়া হবেনা। প্রত্যেক ফুটপাত ও প্রত্যেকটি রাস্তার মোড়কে দৃষ্টিনন্দন করা হবে। যে সমস্ত রাস্তাঘাট জলাবদ্ধতার কারনে নষ্ট হয়েছে এই বছরের মধ্যে নগরীর সব রাস্তাঘাট মেরামত করা হবে। ডোর টু -ডোর টু ময়লা আবর্জনা সংগ্রহে যে উদ্যোগ শুরু করেছি তা শতভাগ নিশ্চিত হবে এই বছরের মধ্য। সেটার শতভাগ সুফল নগরবাসী পাবেন চলতি বছরের মধ্যে। এর ফলে নগরী হবে পরিবেশ বান্ধব ও দুর্গন্ধমুক্ত।
আলাপচারিতায় মেয়র বলেন, হকারদের ইতিমধ্যে আমরা শৃঙ্খলার মধ্য নিয়ে এসেছি। আশা করি শীঘ্রই শতভাগ শৃঙ্খলার আওতায় চলে আসবে। আমরা সব ফুটপাতে স্থাপন করব এলইডি লাইট। নগরবাসী নিশ্চিন্তে নিরাপদে অবাধ চলাচল করতে পারবেন।

1st Image