নিউজটি শেয়ার করুন

ফাঁসিতেও ধর্ষণ বন্ধ হবে না: ভিপি নুর

বিজ্ঞাপন

সিপ্লাস ডেস্ক: ধর্ষককে ফাঁসি দিলেও দেশ থেকে ধর্ষণ বন্ধ করা যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল দুপুরে ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে অধ্যাপক এস.আই.এম.জি মান্নান হলে ভাসানী অনুসারী পরিষদের আয়োজনে ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিনের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

নুরুল হক নুর বলেন, মানুষ এখন ধর্ষণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন। ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ডের আইন করে দিলেই কি ধর্ষণ বন্ধ হয়ে যাবে। আমাদের যে সংস্কৃতির আগ্রাসন চলছে, বিচারহীনতা যে সংস্কৃতি চলছে, রাজনৈতিক প্রভাবে অপরাধীরা যে পার পেয়ে যাচ্ছেন, তাই ফাঁসিতেও ধর্ষণ বন্ধ হবে না। ধর্ষণ কিভাবে বন্ধ হবে?

তিনি আরও বলেন, আপনারা দেখেছেন কে ধর্ষণ করেছে। দেলোয়ার বাহিনী কিভাবে আলোচনায় এসেছে। দেলোয়ার আলোচনায় এসেছে ভোট কেন্দ্র দখল করে। ভোট ডাকাতির জন্য সরকার দেলোয়ার বাহিনীদের তৈরি করে। সুতরাং এই সরকারের পতন না ঘটানো পর্যন্ত ধর্ষণের হাত থেকে জাতিকে রক্ষা করা যাবে না।

ডাকসু ভিপি বলেন, আমাদের দাবি একটাই সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য যদি সংবিধান সংশোধন করে আবার তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থাপনা পুনঃস্থাপন করতে হয়, তাহলে করতে হবে। রাষ্ট্র জনগণের জন্য। আইন জনগণের জন্য। জনগণ ও রাষ্ট্রের প্রয়োজনে আইন একশোবার পরিবর্তন করা যাবে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের প্রেসিডিয়াম মেম্বার নঈম জাহাঙ্গীর। সভা পরিচালনা করেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের প্রেসিডিয়াম মেম্বার আকতার হোসেন।

আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক দিলারা জামান, গণসংহতি আন্দলনের প্রধান সমন্নয়ক জোনায়েদ সাকি, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধের প্রজন্ম আহ্বায়ক কালাম ফয়েজী, মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক কাউন্সিলর মো. ফরিদ উদ্দিন প্রমূখ।