নিউজটি শেয়ার করুন

অক্টোবরেই গণহারে করোনার টিকা প্রয়োগের পরিকল্পনা রাশিয়ার

সিপ্লাস ডেস্ক: রাশিয়া অক্টোবর মাসেই দেশজুড়ে গণহারে করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগের পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাশকো।

প্রথম দফায় শিক্ষক ও চিকিৎসকদেরকে এ টিকা দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রুশ বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স মুরাশকোর উদ্ধৃতি দিয়ে একথা জানিয়েছে বলে বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাশিয়া কর্তৃপক্ষ চলতি মাসেই গণহারে প্রয়োগের জন্য একটি সম্ভাব্য টিকার অনুমোদন দিতে যাচ্ছে।

মস্কোর গবেষণা প্রতিষ্ঠান গামালেয়া ইনস্টিটিউট তাদের টিকার ক্লিনিকাল ট্রায়াল শেষ করেছে এবং এ পরীক্ষায় সফল হয়েছে। এখন তারা টিকাটি নিবন্ধনের কাগজপত্র প্রস্তুত করছে, বলেছেন মুরাশকো।

তিনি বলেন, “অক্টোবরেই বিস্তৃত আকারে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করছি আমরা।

কোভিড-১৯ রোধে বিশ্বে টিকা উৎপাদনে অক্সফোর্ড-মডার্ণার মতো ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলো প্রথম সারিতে থাকার সময়েই সবাইকে তাক লাগিয়ে রাশিয়া প্রথম টিকা নিয়ে হাজির হল।

গত মাসে রাশিয়ার বিজ্ঞানীরা গামালেয়া ইনস্টিটিউটের প্রথম দিককার সব ট্রায়ালে ইতিবাচক ফলাফল এসেছে বলে জানায়। তবে বিশ্বের অনেক দেশের বিশেষজ্ঞরাই রাশিয়ার এ টিকার কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি বলেছেন, চলতি বছরের মধ্যেই তার দেশের হাতে একটি ‘নিরাপদ ও কার্যকর’ টিকা থাকবে বলে তিনি আশা করছেন।

“আমার মনে হয় না অন্যদের টিকা আমাদের চেয়ে এতটা এগিয়ে আছে যে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পেতে আমাদেরকে অন্য দেশের উপর নির্ভর করতে হবে,” বলেছেন তিনি।

বিবিসি জানিয়েছে, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় এখন বিভিন্ন দেশ ও কোম্পানির ২০টিরও বেশি সম্ভাব্য টিকার ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলছে।

এর মধ্যে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের তৈরি করা টিকা মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের প্রাথমিক ধাপে আশাব্যঞ্জক ফলও দেখিয়েছে ।