স্ট্রেচারে ভর করে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিল লিজা

নিউজটি শেয়ার করুন

0Shares
0 0

সন্দ্বীপের মাইটভাঙ্গা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০২০ সালে মানবিক বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করছে সাজিয়া আক্তার লিজা। বাড়ি থেকে তিন কিলোমিটার দূরে সিএনজি চড়ে সাউথ সন্দ্বীপ আবেদা ফয়েজ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আসে। কেন্দ্রের সামনে রাস্তা থেকে স্ট্রেচারে ভর করে হেটে নির্ধারিত কক্ষে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে । ছোট বেলায় একটি দুর্ঘটনায় ডান পা হারিয়েছে সে। তবে একটি পা হারালেও নিজের মনোবল পুরোপুরি ধরে রেখেছে। প্রথম শ্রেণীতে পড়ার সময় এক সন্ধ্যায় পুকুরে হাতপা ধোয়ার সময় বান্ধবীকে ছোড়া ঢিলে লিজার ডান পায়ের হাটুর নিচে আঘাত লাগে। সেদিন রাতে অসহ্য ব্যাথায় ছটফট করতে থাকে। পরদিন স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ নেয়। ব্যাথা না কমায় কয়েক দফা চিকিৎসা পরিবর্তন করা হয়। এভাবে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় চিকিৎসকদের ঔষধে কোন উন্নতি না হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রথমে চট্টগ্রাম শহরে আনা হয়। সেখানেও অবস্থার পরিবর্তন না হওয়ায় ঢাকায় নেওয়া হয় । সেখানে ডাক্তাররা তার পায়ে ইনফেকশন থেকে ক্যান্সারে রুপ নেওয়ার কথা জানায়। দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী লিজার শরীর থেকে ডান পা কেটে ফেলা হয়।

লিজা জানায়, আমার স্বপ্ন লেখাপড়া শেষ করে আইনজীবী হবে। তাই মানবিক বিভাগ নিয়েছি। আমার একটা পা না থাকলেও কোন আক্ষেপ নেই তার। আমি একপায়ে বান্ধবীদের নিয়ে পুকুরে সাতার কাটা থেকে শুরু করে অনেকগুলো খেলা খেলতে পারি। তার চাচা দিদারুল আলম বলেন, আমরা চাই লিজা তার লক্ষ্যে পৌঁছায়। তার পায়ের অভাব আমরা তাকে বুঝতে দিইনি।