নিউজটি শেয়ার করুন

ইমাম শায়খ আব্দুর রহমান আস সুদাইসকে চার বছরের জন্য আবারো মক্কা-মদিনার দুই মসজিদের প্রেসিডেন্ট পদে নিয়োগ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও পুরানো স্থাপনা মুসলিমদের নাবিক খ্যাতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) জন্মভূমি মধ্যপ্রাচ্য সৌদি আরবের পবিত্র মক্কায় অবস্থিত বায়তুল্লাহ (কা’বা ঘর) ঘিরে মসজিদুল আল হেরাম ও রসুলের রওজা মোবারেক ঘিরে মসজিদে নববীতে মদিনা হেরাম।
পবিত্র মক্কা-মদিনা এ দু’হেরামের চার বছরের জন্য পুনারায় ইমামের প্রেসিডেন্ট পদে নিয়োগ পেলেন মক্কা মসজিদুল আল হেরামের ইমাম আব্দুর রহমান আসসুদাইসী।

** কাবা ঘরের ইমাম আব্দুর রহমান আসসুদাইসী##
** একাধারে তিরিশ বছর ইমামমতি করছেন আশ্চর্যের বিষয় হল কেউ একটা লোকমা দিতে পারেনি।
** উনি মক্কা এবং মদিনা দুই জাতীয় মসজিদের প্রধান ইমাম।
** উনি একজন ডক্টর এবং কুরআনুল কারীমের গবেষক।
** উনি মক্কার উম্মুল কোরআ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক।
** উনি একদিনে সব থেকে বেশি টাকা ইনকামকারী ব্যক্তি।
** উনি বিভিন্ন মুসলিম দেশগুলোতে ৪৫ মিনিট/১ ঘন্টার সেমিনার করেন।
** উনি সেমিনারে কোরআনের কোন একটি আয়াত নিয়ে গবেষণা মূলক তথ্য বহুল কথা বলেন।

আব্দুর রহমান আসসুদাইসী শিশু কালের একটি ঘটনা

উনার মা ছোট শিশু সুদাইসী কে বসে রেখে কাবা ঘর তাওয়াফ করছিলেন,এক পর্যায়ে তার মা দেখলেন যেখানে সুদাইসীকে বসে রেখেছিলেন সেখানে সুদাইসী নেই,আশ্চর্যের বিষয় কাবা ঘরের যেখানে হাত দিয়ে দোয়া করলে কবুল হয়,সেখানে হাত দিয়ে ছোট শিশু সুদাইসীর চোখ দিয়ে পানি ঝরছে আর মুখ দিয়ে বির বির কি যেন বলছে।তার মা তাকে সেখান থেকে নিয়ে এসে বসায়ে রাখলেন এবং আল্লাহর কাছে বললেন,হে আল্লাহ আমার ছোট ছেলে সুদাইসী না বুঝে আপনার ঘর ধরে কি বলেছে জানিনা।যদি কোন অপরাধ করে তাকে ক্ষমা করে দিন। এই ছোট শিশু বড় হয়ে হলেন আল্লাহর সেই সম্মানিত কাবা ঘরের ইমাম