নিউজটি শেয়ার করুন

নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত অতিরিক্ত সেনা: ফাঁকা গুলি

নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের হঠাৎ করে অতিরিক্ত সেনা ও বিজিপি মোতায়েন করেছে মিয়ানমার। এতে তারা ফাঁকা গুলি ছুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে। ওই এলাজার পুরো সীমান্ত এলাকাজুড়ে স্থাপন করেছে বাঙ্কার ও নিরাপত্তার নামে অসংখ্য চৌকি।

এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক।

নাইক্ষ্যংছড়ির ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার জানান, ঘুমধুমের তুমব্রু-ভাজাবনিয়া, মগপাড়া, বাইশফাঁড়ি সীমান্তের ওপারে বিশাল এলাকাজুড়ে অসংখ্য চৌকি স্থাপন করেছে মিয়ানমার। সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে ভারী অস্ত্র এদিকে তাক করানো হয়েছে।

স্থানীয় সেলিম জানান, গেল রাতে বিজিপির (মিয়ানমার) সদস্যরা ফাঁকা গুলি ছুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছিল।

তুমব্রু শূন্যরেখায় রোহিঙ্গা নেতা দিল মোহাম্মদ জানান, আইসিজে রায়ের পর থেকে মিয়ানমার সেনারা সীমান্তের বিভিন্ন এলাকায় মর্টারসহ অন্যান্য অস্ত্র নিয়ে অবস্থান নিয়েছে। তাদের সঙ্গে বিজিপির সদস্যদেরও দেখা যাচ্ছে।

এতে করে শূন্যরেখার রোহিঙ্গারা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ জানান, তুমব্রু সীমান্তে ৩৪নং পিলার থেকে ৩৯নং পিলার পর্যন্ত এলাকাজুড়ে মিয়ানমারের বিজিপির সদস্যরা বাঙ্কার খনন ও চৌকি স্থাপন করেছে। তবে আতঙ্কের কিছু নেই, সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিজিবি সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে।