নিউজটি শেয়ার করুন

ঢাকা সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হচ্ছে না

আসন্ন ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনীকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে নামাবে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে ৫৮তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনীর দায়িত্ব থাকে, সে নির্বাচনে তাদের ডাকা হয়। এটি জাতীয় নির্বাচন নয়, স্থানীয় সরকার নির্বাচন। এখানে সেনাবাহিনীকে কোনো দায়িত্ব দেয়া হয়নি।

তিনি আরও বলেন, ইভিএমে যারা কাজ করবে তারা সেনাবাহিনীর ফোর্স না টেকনিক্যাল লোক। যারা ইভিএমের এক্সপার্ট তাদের শুধু রাখা হবে। কিন্তু কোনো যোদ্ধা বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য তাদের কোন দায়িত্ব নেই।

২০১৫ সালের নির্বাচনে ক্যান্টনমেন্টে সেনাবাহিনীকে স্ট্যান্ডবাই রাখা হয়েছিল, এবার সেনাবাহিনীকে কোনভাবে রাখার পরিকল্পনা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এবার নির্বাচনে এমন কোনো পরিকল্পনা নেই।

নির্বাহী মেজিস্ট্রেটরা মাঠ পর্যায়ে ভিসিবল না এমন অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর বলেন, আমরা বিভাগীয় কমিশনারের সঙ্গে বেশ কয়েকবার কথা বলেছি। তারা বলেছে সকল ম্যাজিস্ট্রেটকে তারা ভিসিবল করার চেস্টা করছে। তবে সবসময় যে ম্যাজিস্ট্রেটরা জানিয়ে যাবে তা নয়, কিছু কিছু সময় তদন্ত করতে হলে তাদের গোপনে যেতে হয়। এ জন্যই হয়ত সবার সামনে ভিজিবল (দৃশ্যমান) হচ্ছে না। কিন্তু রিপোর্ট তারা ঠিকই দিচ্ছেন।

সিইসির সভাপতিত্বে বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, মো. রফিকুল ইসলাম ও কবিতা খানম, ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর ও অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান।