নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়ায় প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে প্রতিবন্ধীর দোকান ভাঙচুর

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দক্ষিণ রাজানগর ইউনিয়নের ধামাইরহাট বাজারে এক প্রতিবন্ধীর দোকান ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১০টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক প্রতিবন্ধি মো. আব্বাস মিয়া (৩৩)। এই ঘটনায় ধামাইরহাট ব্যবসায়ী সমিতির কাছে অভিযোগ করেছেন প্রতিবন্ধী যুবক।

তিনি জানান, দোকানটি তার একমাত্র উপার্জনের মাধ্যম। সোমবার রাতে তিনি দোকান বন্ধ করে বাড়ি চলে গিয়েছিলেন। রাতে মানুষের কাছে খবর পেয়ে এসে দেখেন তার দোকানটি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। দোকানের মালামাল নষ্ট করা সহ ক্যাশ বাক্সের টাকাও নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এতে তার সর্বমোট ৪০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, গতকাল রাত ১০.৩০ এর দিকে জলদাশ পাড়ার লগু দাশ সহ প্রায় ৫০ জন মধ্যপায়ী ব্যক্তি লাঠিসোটা হাতে প্রতিবন্ধী আব্বাসের দোকান ভাংচুর করতে থাকে। এসময় তাদের বাঁধা দেওয়া হলে, তারা প্রশাসনের নির্দেশ আছে বলে জানান। এক পর্যায়ে চ্যালেঞ্জ করলে তারা পালিয়া যায়। ধামাইর হাট ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম সেলিম বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই ধরণের কোন নির্দেশনা আছে বলে আমার জানা নেই।’

দক্ষিণ রাজানগর ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ সৈয়দ তালুকদার জানান, মন্দিরের দেওয়ালে কাজ করার জন্য আমি চৌকিদার পাঠিয়ে তাকে দোকানটি সরিয়ে নিতে বলেছিলাম। সে কয়েকদিনের সময় চেয়েছিল। কিন্তু তার আগেই এই ধরণের ঘটনা করা দুঃখজনক। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই ব্যাপারে অভিযুক্ত কালী মন্দিরের সভাপতি লগু দাশকে (৫০) প্রশাসনের নির্দেশ আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, প্রশাসন দোকান সরাতে বলেছেন কিন্তু ভাঙ্গার নির্দেশ দেয়নি। তিনি ঘটনার দায় স্বীকার করেন এবং এই বিষয়ে বৈঠকের মধ্য দিয়ে ক্ষতিপূরণ দিয়ে দেবে বলে জানান।

এই ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘দোকান ভাঙার নির্দেশ প্রশাসন থেকে দেয়া হয়নি। যারা প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে এই কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’