নিউজটি শেয়ার করুন

সীতাকুণ্ডে স্টিল মিলে ফার্ণেস বিস্ফোরণে দগ্ধ ৫

সীতাকুণ্ডের বানুরবাজারে সীমা স্টিলে ফার্ণেস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে ফার্ণেসের আগুনে ৫ শ্রমিক মারাত্বকভাবে দগ্ধ হয়েছে। আহতদের নগরীর বেসরকারী হাসপাতাল আল আমিনে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় সীমা স্টিল রি-রোলিং মিলে এ দগ্ধের ঘটনা ঘটে। আহতরা হচ্ছে ১। রাজীব বিশ্বাস (৩৩- ফার্নেস বারিম্যান) পিতা- কেরামত আলী বিশ্বাস সাং- তুলাতলী বিশ্বাস বাড়ী, সীতাকুণ্ড। যতনময় ত্রিপুরা(২২- ফার্নেস হেলপার) পিতা- মনসিংহ ত্রিপুরা সাং- ১নং বোয়ালখালী প্রকল্প, দীঘিনালা জেলা- খাগড়াছড়ি ৩। আবু হাছান (২৪- ফার্নেস হেলপার) পিতা- আবুল কালাম সাং- রতনপুর থানা- পটিয়া, মোঃ বাবুল (৩৪-ফার্নেস হেলপার) পিতা- আবুল বাশার সাং- রসুলপুর আব্দুল পাটোয়ারী বাড়ী থানা- রামগঞ্জ জেলা- লক্ষীপুর ৫। কাশেম (৪০-ফার্নেস হেলপার) বানুর বাজার, সীতাকুণ্ড। বিস্ফোরণের খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা ও ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ কারখানা পরিদর্শন করেন।

জানা যায়, সকালে স্টিল মিলের ফার্ণেসে লোহা গলানোর কাজ করার সময় হঠাৎ বিকট শব্দে ফার্ণেস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এসময় ফার্ণেসের ভেতরে থাকা উত্তপ্ত লোহার গলিত শিখা চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে থাকা ৫ শ্রমিক দগ্ধ হয়। দুর্ঘটনার পর দগ্ধ শ্রমিকদের দ্রুত উদ্ধার করে নগরীর বেসরকারী হাসপাতাল আল আমিনে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে দগ্ধ ৫ শ্রমিকের মধ্যে তিন শ্রমিককে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হলেও আবু হাছান এবং আবুল কাশেমের শরীরের ১৮ শতাংশ দগ্ধ তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শামীম শেখ জানান, স্টিল মিলে ফার্ণেস বিস্ফোরণের খবর পেয়ে আমরা কারখানা পরিদর্শন করেছি। লোহা গলানোর কাজ করার সময় ফার্ণেস বিস্ফোরণে গলিত লোহা ছড়িয়ে পড়ায় ৫ শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে। দগ্ধ শ্রমিকদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এ ঘটনায় তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।