নিউজটি শেয়ার করুন

খাগড়াছড়িতে ত্যাগী সদস্যদের কাউন্সিলর না করায় প্রতিবাদ

খাগড়াছড়ির জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিলে সদর ও পৌর আওয়ামী লীগের ৪০ জন সদস্যকে কাউন্সিলর না করা ও বিতর্কিত বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া ৬ জনকে কাউন্সিলর করার প্রতিবাদ জানিয়েছেন বঞ্চিত সদর ও উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

শনিবার দুপুরে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ প্রতিবাদ জানান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো: নুরুন্নবী।

নেতারা অভিযোগ করে বলেন, গত শুক্রবার জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর তালিকা পাওয়ার পর তাতে দেখা যায় ৬ জন বিতর্কিত নেতার নাম সেখানে রয়েছে। তাই আগামীকাল জেলা কাউন্সিলে নতুন কমিটির নির্বাচনে ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীরা যাতে কমিটিতে আসতে না পারে এ জন্যই এ কাউন্সিলর তালিকা করা হয়। অচিরেই গণতান্ত্রিক ধারা বজায় রাখতে বঞ্চিত নেতাদেরকে কাউন্সিলর করে ও বিতর্কিতদেরকে বাদ দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন নেতারা।

অভিযোগে আরো বলা হয়, কাউন্সিলর হিসেবে বিতর্কিতরা হলেন, একসময়ের ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা মো: আলী, বর্তমান উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সজল কান্তি দাশ, আলোক প্রদীপ ত্রিপুরা (বিপণ), পার্থ ত্রিপুরা (জুয়েল), নব্য আওয়ামী লীগে যোগদানকরী বিতর্কিত সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো: শানে আলম।

সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক কাউন্সিলর ইসলাম উদ্দিন প্রমুখ।