ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জঙ্গিদের কাছে আইএস টুপি এল কোত্থেকে, গেল কোথায়?

সিপ্লাস ডেস্ক
  • Update Time : বুধবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৯, ০৯:১৩ pm
  • ১৯৯ বার পড়া হয়েছে

কারাগার থেকে আদালতে- পুরো সময়টি পুলিশের নিরাপত্তা বেষ্টনির মধ্যে দুই জঙ্গির মাথায় আইএসের চিহ্ন সম্বলিত টুপি কীভাবে এল, তা আবার কোথায় গেল, তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন; ফলে একটি তদন্ত কমিটি করেছে কারা কর্তৃপক্ষ।

ঢাকার জেলার মাহবুব আলম বলেছেন, রায়ের আগে কারাগার থেকে যাওয়ার সময় আসামিদের কারও মাথায় ওই রকম কালো টুপি ছিল না। রায়ের পর তারা ফিরলে তল্লাশি করা হয়েছিল, তখনও ওই রকম টুপি পাওয়া যায়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, রায় ঘোষণার পরে রিগ্যান আদালতের কক্ষ থেকে বের হওয়ার সময় আদালত ভবনের পঞ্চম তলারই কেউ একজন তাকে গেইটের কাছে টুপি সরবরাহ করে।

আসামি পক্ষের আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের প্রশ্নে বলেন, “আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের হাতে ছিল …. এটা পুলিশের বিষয়।”

জানতে চাইলে পুলিশের উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) জাফর আহমেদ  বলেন, “এটা আমরা খেয়াল করতে পারিনি। ধর্মীয় টুপি বলেই মনে করেছিলাম। পরে বিষয়টি নজরে আসে। তবে আদালত থেকে এ ধরনের টুপি আসামিদের হাতে যাওয়ার সুযোগ নেই।”

আসামিদের মাথায় আইএসের পতাকার চিহ্ন সম্বলিত টুপি নিয়ে আলোচনার মধ্যে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, বিষয়টির তদন্ত হওয়া উচিৎ।

প্রিজন ভ্যানে তোলার সময়ও টুপি দেখা গিয়েছিল আসামিদের মাথায়; কিন্তু তাদের কারাগারে নেওয়ার সময় তা পাওয়া যায়নি। পুলিশ কর্মকর্তারাও টুপিটি পাননি বলে জানিয়েছেন।

উপকমিশনার জাফর বলেন, তারা ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছেন। ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ওই টুপি আসামিরা সঙ্গে করে এনেছেন, না আদালত চত্বরে কেউ তাকে দিয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এ মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, “এখনও আলামত হিসাবে টুপিটি পাওয়া যায়নি। পাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।”

তবে তিনি বলেন, ওই টুপিটি আইএসের নয়, নব্য জেএমবির টুপি হতে পারে।

এদিকে কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তফা কামাল  বলেছেন, আদালতে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে দণ্ডিত আসামির মাথায় ওই টুপি কীভাবে এল, তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি করেছেন তারা।

একজন অতিরিক্ত আইজিকে প্রধান করে তিন সদস্যের এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাঁচ দিনের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

“কমিটি কারাগারের বিষয়টি খতিয়ে দেখবে,” বলেন কারা মহাপরিদর্শক মোস্তফা কামাল।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 cplusbd.net