নিউজটি শেয়ার করুন

হত্যা মামলায় জামিন পেলেন রাঙ্গুনিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান, সড়কে শোডাউন

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়ায় একটি হত্যা মামলা থেকে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে বের হওয়ার পর সড়কে শোডাউন করেছে হোছনাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা মো. সেকান্দর হোসেন।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার তাপ বিদ্যুৎ ফটক থেকে শতাধিক মোটর সাইকেল নিয়ে শোডাউন করে নিজ এলাকায় ফিরে আসেন তিনি।

শোডাউন শেষে দুপুরে হোছনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে এক সংবর্ধণা সভার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা আ.লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য এডভাকেট আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে ও রাঙ্গুনিয়া কলেজ ছাত্রলীগ নেতা জুয়েল খাঁন হৃদয়ের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আ.লীগের সহসভাপতি মো. আলমগীর, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম, আ.লীগ নেতা রাকেশ রায় চৌধুরী, যুবলীগ নেতা মির্জা এমাজ উদ্দিন এ্যাপোলো। অনুষ্ঠানে ইউপি চেয়ারম্যানকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ইউপি সচিব যীশু রায় চৌধুরী, আ.লীগ নেতা মুজিবুর রহমান, শিক্ষক নেতা রঞ্জন বড়ুয়া, মোগলের হাট ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সভাপতি মো. নুরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমসহ হোছনাবাদ ইউপি’র সকল সদস্যরা।

সভায় বক্তারা বলেন, “ প্রতিহিংসামূলক কারনে ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা সেকান্দরকে হত্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে। তিনি জামিন পেয়েছেন সত্যের জয় হয়েছে। ”

উল্লেখ্য সেপ্টেম্বরে মো. ইউনুচ নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পরে তাঁর পুত্র মো. রাসেল ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা সেকান্দর হোসেনসহ কয়েকজনকে আসামী করে রাঙ্গুনিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

দীর্ঘ এক মাস পর মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) কারাগার থেকে জামিনে বেরিয়ে আসেন ইউপি চেয়ারম্যান।