নিউজটি শেয়ার করুন

সীতাকুণ্ডে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি: সীতাকুণ্ডে করোনা ভাইরাসজনিত প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধ ,রমজানে বাজার মনিটরিং ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতকরনের উদ্দেশ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। শুক্রবার (২২মে) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালতের পরিচালিত অভিযানে ১৭ টি মামলায় ৫৩ হাজার ১শ’ত টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। চলমান অভিযানে সীতাকুণ্ড উপজেলার পৌরসভা, কলেজ গেইট, বাড়বকুণ্ড বাজার, জোড়ামতল বাজার, ভাটিয়ারী ইউনিয়নের অন্তর্গত মাদামবিবিরহাট, নেভি গেইট, ভাটিয়ারী বাজার, জলিল স্টেশন বাজার এলাকায় করোনা ভাইরাসজনিত প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের লক্ষ্যে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতকরন বাজার মনিটরিং ও সেনাবাহিনীকে আইনগত নির্দেশনা প্রদানের উদ্দেশ্যে নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে উক্ত স্থানগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। সপ্তাহ ধরে চলমান বাজার মনিটরিং কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বাড়বকুণ্ড বাজারের দুইটি মুদি দোকানকে ৩ হাজার টাকা করে ৬ হাজার টাকা, মাদাম বিবির হাট এর একটি মুদি দোকানকে ৩ হাজার এবং দক্ষিণ ভাটিয়ারীর জলিল স্টেশনের দুইটি মুদি দোকানকে ৩ হাজার করে ৬ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এসব দোকানকে মূল্য তালিকা না থাকা, মূল্য তালিকায় প্রদর্শিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয় করা সহ বিভিন্ন অপরাধে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় সীতাকুণ্ড পৌরসদরের জিয়া ক্লথ স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, তানিশা ফ্যাশনকে ৭ হাজার ও স্মার্ট জেন্টস পার্লার এন্ড এসি সেলুনকে ৫ হাজার, জোড়ামতল বাজারের মুন্নি সু এন্ড কসমেটিকসকে ২ হাজার, মাদাম বিবির হাট এর এবি হার্ডওয়ার এন্ড ক্লথ ষ্টোরকে ৫ হাজার, নেভি রোডের কামাল ক্লথ ষ্টোরকে ২ হাজার, ইয়াসিন ক্লথ ষ্টোরকে ১ হাজার, রিমন স্টোর ও জুয়েল সেলুন ১ হাজার করে ২ হাজার, ভাটিয়ারী বাজারের খাজা কালু শাহ স্টোর ও নীহারিকা হেয়ার কাটিং সেলুনকে ২ করে ৪ হাজার এবং জলিল স্টেশনের সৌরনীল বুটিকসকে ১শ’ত টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। করোনা পরিস্থিতিতে জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান, ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী।