নিউজটি শেয়ার করুন

সাদা-কালো পোস্টারে সেজেছে নগরী

শাহরুখ সায়েল: বানিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনী প্রচারণায় চলছে ভোট উৎসব।
আসন্ন ২৭ জানুয়ারি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন। দুটি বড় দল ভোটে অংশ নেওয়ায় বেশ জমে উঠেছে প্রচারণা। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নগরীর রাজপথসহ অলিগলি ছেয়ে গেছে মেয়র পদপ্রার্থী ও কাউন্সিলরদের হরেক রকমের পোস্টারে। ভোটের পোস্টার হওয়াতে সবগুলোই সাদা-কালো রঙের। তাই ব্যস্ততম এই শহরের সৌন্দর্য অনেকটা বেড়ে গেছে।
মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকালে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, পুরোদমে চলছে নির্বাচনী প্রচারণা। যতদূর চোখ যায় ততদূরই পোস্টার ও ব্যানার দেখা যায়। নৌকা ও ধানের শীষের মেয়রপ্রার্থী এবং দুই দলের সমর্থিত কাউন্সিরর প্রার্থীরা নির্বাচনে প্রচারে নগরীর ফ্লাইওভার, ফুট ওভারব্রিজ, বিদ্যুতের খুঁটি, বাসা-বাড়ির দেওয়ালসহ কোনও এলাকাই বাদ যায়নি পোস্টার ও ব্যানারে। কোথাও যেন তিল ধারণের ঠাঁই নেই।
ইপিজেড, বন্দর, লালখান বাজার, ডবলমুরিং এলাকায় নৌকা ও ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী, কাউন্সিলদের পোস্টারে ঢাকা পুরো এলাকা। বিএনপি কার্যালয় ও নগরীর কিছু জায়গায় বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থী ডা. শাহাদাতের পোস্টার দেখা গেলেও পুরো নগরীজুড়ে দেখা গেছে নৌকার মনোনীত প্রার্থী এম. রেজাউল করিমের পোস্টার।
পাশাপাশি রয়েছে কাউন্সিলদের পোস্টারও।বড় দুই দলের পোস্টারের পাশাপাশি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: জান্নাতুল ইসলামের হাতপাখা প্রতীকের পোস্টারও দেখা গেছে। প্রতিদিনই মেয়র-কাউন্সিলর প্রার্থীরা গণসংযোগ করছেন। নিজ নিজ সীমানা প্রাচীরের ভেতরেই অব্যাহত রেখেছেন নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। সকাল থেকেই কাউন্সিলর প্রার্থীরা নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছেন। দিচ্ছেন বিভিন্ন প্রতিশ্রুতিও। লিপলেট নিয়ে নেতাকর্মীরা যাচ্ছেন ভোটারদের দুয়াড়ে দুয়ারে।
প্রসঙ্গত, নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২০২০ সালের ২৯ মার্চ ভোট গ্রহণের কথা থাকলেও করোনামহামারির জন্য তারিখ পরিবর্তন করে আগামী ২৭ জানুয়ারি ভোট গ্রহনের দিন ঠিক করেছে নির্বাচন কমিশন। এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে ইভিএম এর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ।
Aa