নিউজটি শেয়ার করুন

সাঈদীর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলা

কক্সবাজার ব্যুরোঃ  চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদীর বিরুদ্ধে কক্সবাজার জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা আত্মসাতের মামলা দায়ের হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ (সদর) এ মামলাটি দায়ের করেন জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ ফরহাদুজ্জামান।

সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. হেলাল উদ্দিন বাদীর আরজি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কক্সবাজারের পুলিশ সুপারকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী ফরহাদুজ্জামানের আইনজীবী রমিজ আহমেদ।

বাদীর দায়ের করা এজহারে বলা হয়, কক্সবাজার জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের গঠনতন্ত্রের ১৮ ধারা অনুযায়ী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষের যৌথ স্বাক্ষরে ব্যাংক হিসাবের লেনদেন করার কথা। এ বিষয়ে অ্যাসোসিয়েশনের কার্যবিবরণীতে স্পষ্ট নির্দেশনা আছে।

কক্সবাজার জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষকে বাদ দিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের জাল কার্যবিবরণী তৈরি করে সভাপতি ফজলুল করিম সাঈদী এবং অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য রামুর কাউয়ার খোপ ইউনিয়নের মৃত মোহাম্মদ আলী সওদাগরের ছেলে ছিদ্দিক আহমদ যৌথ স্বাক্ষর দিয়ে ‘কক্সবাজার জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন’ নামীয় সাউথ ইস্ট ব্যাংক কক্সবাজার শাখার (০০২২১৩১০০০০১০২৩) হিসাব থেকে গত ২০২০ সালে ১ জানুয়ারি ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন।

যা সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ১৮ ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন এবং কার্যবিবরণীর পরিপন্থী। এ ঘটনায় ফজলুল করিম সাঈদী এবং ছিদ্দিক আহমদকে মামলার বাদী গত ৮ ডিসেম্বর লিগ্যাল নোটিশ দেন। এর যথাযথ উত্তর না পাওয়ায় মামলাটি করা হয়েছে।

মামলায় ছিদ্দিক আহমদকে ২ নম্বর আসামি করা হয়। মামলায় চারজনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, অভিযোগের সত্যতা নেই, তা তদন্তেই প্রমাণিত হয়ে যাবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে এটা ষড়যন্ত্র ছাড়া কিছু নয়। শীঘ্রই বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যাবে।