নিউজটি শেয়ার করুন

সরকার পতনের উসকানি দেওয়ায় বিএনপি নেতা এনামসহ ৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সিপ্লাস প্রতিবেদক: অস্ত্র নিয়ে মাঠে নেমে সরকার পতনের উসকানি দেওয়ায় পটিয়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এনামুল হক এনামসহ ৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ ক ম শামসুজ্জামান চৌধুরী।

শনিবার (৯ জানুয়ারি) রাতে পটিয়া থানায় এই মামলা করা হয়। এতে এনামুল হক এনাম ছাড়াও আসামি করা হয়েছে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব খোরশেদ আলম, বিএনপি নেতা মফজল আহমদ, খলিলুর রহমান বাবু, আবদুল মোনাফ, নুরুল আবছার, তরিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ ইউছুপ, মো. হায়দারসহ অজ্ঞাতানামা ৫০জনকে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, নেতা কর্মীদের অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে মাঠে নেমে সরকার পতনের ডাক দিয়েছেন এনামুল হক। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার কচুয়ায় ইউনিয়ন বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল দলের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এ হুমকি দেন।

সম্প্রতি এনামুল হক এনাম উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক মনোনীত হন। তাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসে কচুয়া ইউনিয়ন বিএনপি-ছাত্রদল নেতা কর্মীরা। এ সময় তাদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন এনাম।

বক্তব্যে এনাম বলেন, ‘এ সরকাকে পতন করতে হলে অস্ত্র লাগবে। লাঠি লাগবে। আপনারা খালি হাতে কেউ নামবেন না। কারণ এ দেশ চালাচ্ছে একটা ডাকাত সরকার। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে শুরু করে সব জায়গা ডাকাতের দখলে চলে গেছে। তাই তাদের উচ্ছেদ করতে হলে ঐক্যবদ্ধভাবে করতে হবে। ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। কোন কর্মীকে আঘাত করা হলে, ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের আঘাত করুন।’

তিনি বলেন, ‘তাহলেই এ আওয়ামী লীগ সরকার উচ্ছেদ হবে। আপনারা ভয় পাবেন না। আমাদের সরকার ক্ষমতায় আসবে। এনামুল হক এনাম উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন বলে বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন।

পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানান, হুঙ্কার দিয়ে অস্ত্রসহ মাঠে নেমে সরকার পতনের উস্কানিমূলক যে বক্তব্য দিয়েছেন এর বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় একটি মামলা হয়েছে। এতে প্রধান আসামী বিএনপি নেতা এনামুল হক এনাম।