নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়ার কোদালায় স্কুলবিহীন গ্রামে নির্মিত হবে প্রাথমিক বিদ্যালয়

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি : রাঙ্গুনিয়া উপজেলার কোদালা ইউনিয়নের মধ্যম কোদালা ৬ নম্বর ওয়ার্ডে প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণের কার্যক্রম অবশেষে শুরু করা হচ্ছে।

দীর্ঘদিন ধরে ওই গ্রামসহ পূর্ব কোদালা, জঙ্গল কোদালা, বণিক পাড়া, মাছুপ্পা ঘোনা, নতুন পাড়া এলাকার হাজার হাজার শিক্ষার্থীরা দূরবর্তী স্কুলে গিয়ে পড়ালেখা করে আসছিল।

এতে অল্পতেই ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে বেড়ে চলছিল। তবে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতিশ্র“তি অনুযায়ী তথ্যমন্ত্রী ও রাঙ্গুনিয়া সাংসদ ড. হাছান মাহমুদের মাধ্যমে বিদ্যালয় বিহীন এই গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ হতে যাচ্ছে। সরকারের “বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় ১০০০ নতুন প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন” শীর্ষক নতুন প্রকল্পের আওতায় এই বিদ্যালয়টি স্থাপন হতে যাচ্ছে।

ইতিমধ্যে বিদ্যালয় নির্মাণে সরকারি বিধি মোতাবেক ৪০ শতক জায়গা দান করেন কোদালার ঐতিহ্যবাহী চৌধুরী পরিবারের সদস্য অভিভক্ত শিলক ইউপি চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) আবু হায়দার চৌধুরী ও তার চাচাতো ভাই হারুন চৌধুরীসহ তাদের পরিবারের সদস্যবর্গ। “মরহুম সেয়ানত আলী চৌধুরী” এর নামে এই বিদ্যালয়টির নামকরণ করার প্রস্তাব দিয়েছেন ভূমিদাতারা।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে কোদালায় নতুন বিদ্যালয় নির্মাণের প্রস্তাবিত ওই জায়গাটি পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাসুদুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকৌশলী দিদারুল আলম, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হিন্দুল বারী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বাবুল কান্তি চাকমা, কোদালা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম তালুকদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. বদিউল আলম, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. নুরুল আজিম, নূর খান কাঞ্চন, সুলতান আহাম্মদ, আব্দুল সালাম তালুকদার, ডা. এম এ জুয়েল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. ইছহাক সওদাগর, মো. সেলিম, সহ সভাপতি জহুর আহাম্মদ, এন এন কে ফাউন্ডেশন কোদালা ইউনিয়ন সভাপতি আব্দুল আজিজ, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি জাফর আহাম্মদ, সাধারণ সম্পাদক পরিমল ঘোষ, জমি দাতা পরিবারের সদস্যদের মধ্যে হারুন চৌধুরী, মঞ্জু চৌধুরী, মাহফুজুর রহমান চৌধুরী এডিন, আকাশ আহামেদ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা দিলদার আজম লিটন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রফিক হাছান, মো. রাখেশ, মো. মিথুন প্রমুখ।

উল্লেখ্য কোদালায় এই গ্রামসহ উপজেলার ইসলামপুরে আরও দুটি নতুন প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করার প্রক্রিয়া চলছে।