নিউজটি শেয়ার করুন

মাহতাবেরই পদত্যাগ করা উচিত, প্রধানমন্ত্রীর বিরোধিতা করছেন মোছলেম : ড. অনুপম সেন(ভিডিও)

প্রধানমন্ত্রীর বিরোধিতা করছেন মোছলেম : ড. অনুপম সেন(ভিডিও)

জিয়াউল হক ইমন: সিআরবি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো আবেদনে চট্টগ্রামের যে ২৫ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি স্বাক্ষর করেছেন তার একজন হচ্ছেন মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। তিনি একদিকে আবেদনে স্বাক্ষর করেছেন, অন্যদিকে আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটির মিটিংয়ে বলেছেন যেসব আওয়ামী লীগ নেতা ‘আন্দোলনের’ নামে বাড়াবাড়ি করছেন, তাদের আন্দোলনে যোগ দেওয়ার আগেই আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ করা উচিত। তার এমন মন্তব্য প্রমান করে এটা তার দ্বিমুখি আচরণ বরং প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদনে স্বাক্ষর দেয়ার জন্য মাহতাবেরই পদত্যাগ করা উচিত।

অন্যদিকে মোছলেম উদ্দীন আহমদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাতেই এই প্রকল্প নেওয়া হয়েছে এর বিরোধিতা করা মানে শেখ হাসিনার বিরোধিতা করা। কিন্তু একজন জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিবিদ হয়ে মোছলেম উদ্দিন এ কথা বলতে পারেন না। এখানে আমরা নই বরং মোছলেম উদ্দিন নিজেই প্রধানমন্ত্রীর বিরোধিতা করছেন কারণ আমাদের প্রধানমন্ত্রী একজন চ্যাম্পিয়ন অব দ্যা আর্থ পাওয়া প্রধানমন্ত্রী। পরিবেশ রক্ষায় আমাদের প্রধানমন্ত্রীর অনেক অবদান রয়েছে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর বিপক্ষে নই বরং প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে আন্দোলন করছি।

সিআরবি রক্ষার আন্দোলন নিয়ে হঠাৎ করে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁন্দগাও-বোয়ালখালী আসনের সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দীন আহমদ কটু মন্তব্য করায় দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

বুধবার(১ সেপ্টেম্বর) রাতে সিআরবি রক্ষা আন্দোলনের প্লাটফর্ম ‘নাগরিক সমাজ চট্টগ্রাম’র আহ্বায়ক  ড. অনুপম সেন তাদের বক্তব্যের জবাবে সিপ্লাসের কাছে এভাবেই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

ড. সেন বলেন, যেহেতু সিআরবি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী বরাবর পাঠানো চিঠিতে মাহতাব স্বাক্ষর করেছেন সুতরাং তারই পদত্যাগ করা উচিত। আর সিআরবির আন্দোলন নিয়ে এসব অন্যায় মন্তব্য করে মোছলেম উদ্দিন সাহেব রাজনৈতিক নেতা সুলভ আচরণ করেননি।আমাদের বিশ্বাস প্রধানমন্ত্রী কোন অবস্থায় সিআরবি ধ্বংস হতে দেবেন না। আর আমাদের এই বিশ্বাস আছে বলেই আমরা সিআরবি রক্ষার এ আন্দোলন করে যাচ্ছি। আমি মনে করি জনপ্রতিনিধি হিসাবে মোছলেম উদ্দিন যে মন্তব্য করেছেন তা খুবই লজ্জা জনক।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার(৩১ আগস্ট) রাতে মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা শেষে নেতাদের উপস্থিতিতে মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেছিলেন,  প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদিত প্রকল্প সিআরবি হাসপাতালের বিরোধিতাকারী যেসব আওয়ামী লীগ নেতা ‘আন্দোলনের’ নামে বাড়াবাড়ি করছেন, তাদের আন্দোলনে যোগ দেওয়ার আগেই আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ করা উচিত ছিল এবং তিনি আন্দোলনে থাকা আওয়ামী লীগ নেতাদের পদত্যাগের আহ্বান জানান বলেও গণমাধ্যমে প্রচার হয়।

তবে বিষয়টি নিয়ে বুধবার(১ সেপ্টেম্বর) রাতে মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী সিপ্লাসকে বলেন আমি সিআরবি নিয়ে আর কোনো মন্তব্য করতে চাই না। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, এতে আমার দলের চেইন অব কমান্ড ভেঙে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের দলীয় প্রধান যেদিকে আমিও সেই দিকে। এর বাইরে এখন আর কিছু বলতে পারবো না।

এর আগে ২৮ আগস্ট চট্টগ্রাম সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের এক অনুষ্ঠানে মোছলেম উদ্দিন আহমদ বলেন, চট্টগ্রামের সিআরবিতে হাসপাতাল স্থাপনের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনকে ‘উদ্দেশ্যমূলক ও হীন স্বার্থের আন্দোলন’ হিসেবে অভিহিত করে এই হাসপাতাল স্থাপনের বিরোধিতা কাম্য নয়। সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের পক্ষে নিজের অবস্থান সম্পর্কে তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাতেই এই প্রকল্প নেওয়া হয়েছে এর বিরোধিতা করা মানে শেখ হাসিনার বিরোধিতা করা।

বিস্তারিত ভিডিওতে..

 

5 1 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments