নিউজটি শেয়ার করুন

ব্রাজিলের সেই কর্মকর্তা মাঠে প্রবেশ করেছিলেন অস্ত্রসহ!

সিপ্লাস ডেস্ক: ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার সুপার ক্লাসিকোতে অনাকাঙ্ক্ষিত এক ঘটনা ঘটে গেল। দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে পাঁচ মিনিট না যেতেই ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তারা মাঠে প্রবেশ করেন।

তাদের উদ্দেশ্য ছিল ইংল্যান্ড ফেরত ৪ আর্জেন্টাইন ফুটবলারকে আটক করা। অভিযোগ উঠেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা সেই ফুটবলাররা ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন না করেই মাঠে নেমেছেন।

টিওয়াইসি স্পোর্টস জানায়, এই কর্মকর্তাদের একজন ছিলেন সান পাবলো পুলিশ অফিসার। যিনি মাঠে অস্ত্রসহ নেমে পড়েন। এই ঘটনায় ইতোমধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। কালো টি-শার্ট পরিহিত সেই ব্যক্তিকে মাঠে আর্জেন্টাইন ফুটবলার নিকোলাস ওতামেন্দি ও মার্কোস আকুনার সঙ্গে বাকবিতণ্ডা করতে দেখা যায়। পরে কোচ লিওনেল স্কালোনি তাদের আলাদা করে দেন।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগ আনভিসার এমন কর্মকাণ্ডের পর ম্যাচটি স্থগিত করা হয়।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগের ঘোষণা অনুযায়ী, যুক্তরাজ্য থেকে আসা লোকদের অবশ্যই ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগের একটি দল হোটেলে গিয়ে আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়দের করোনা সংক্রান্ত ছাড়পত্র আছে কি না তা পরীক্ষা করে দেখবে।

ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যম ‘ইউওএল’জানিয়েছে, যদি আর্জেন্টিনার প্রিমিয়ার লিগে খেলা ৪ খেলোয়াড় যদি কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড় পাওয়ার জন্য সঠিক কাগজপত্র দেখাতে না পারেন, তাহলে ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে তাদের খেলতে দেওয়া হবে না। প্রিমিয়ার লিগে খেলার কারণে খোদ ব্রাজিলের ৯ জন খেলোয়াড় এবার বাছাইয়ের দুই ম্যাচ খেলতে পারছেন না। আরও কয়েকটি দলও একই কারণে মূল তারকা খেলোয়াড়দের ছাড়াই মাঠে নামছে। কারণ ইউরোপের কয়েকটি দেশের ক্লাবের পক্ষ থেকে দক্ষিণ আমেরিকায় খেলতে গেলে নিষেধাজ্ঞার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তারা যদি খেলতে যেতেন, তাহলে ফেরার পর তাদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হতো। ফলে ক্লাবগুলো গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ম্যাচে তাদের খেলাতে পারত না।

সন্দেহের তালিকায় থাকা চার খেলোয়াড়ের তিন জন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস, ডিফেন্ডার ক্রিস্তিয়ান রোমেরো ও মিডফিল্ডার জিওভানি লো সেলসো ছিলেন সফরকারীদের শুরুর একাদশে। কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই কোয়ারেন্টাইন নিয়ম ভঙ্গ করে মাঠে ঢুকে পড়ায় তাদের আটক করতে আসে স্বাস্থ্যকর্মীরা। এমনকি সাদা পোশাকধারী পুলিশও সেখানে ছিল।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments