নিউজটি শেয়ার করুন

বোয়ালখালীতে প্রবাসীর স্ত্রীকে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

বোয়ালখালী প্রতিনিধিঃ বোয়ালখালীতে পারিবারিক ঘটনার জেরে রহিমা বেগম (৩২) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযুক্ত আসামীদের এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নির্যাতিত পরিবার।

এদিকে গ্রেফতার এড়িয়ে অভিযুক্ত আসামীরা সাক্ষীদের হুমকি দেবারও অভিযোগ রয়েছে। আসামীরা পলাতক থাকায় এখন পর্যন্ত তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব না হলেও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফারুক।

উল্লেখ্য, উপজেলার পশ্চিম শাকপুরা, উপেন্দ্র নাথ পেশকারের বাড়িতে প্রবাসী হারুনুর রশিদের ছেলে মোঃ আবদুল্লাহ (১১) বসত বাড়িতে সাইকেল চালানোর সময় সাজিয়া বেগম মারধর করে ছেলের চিৎকার শুনে মা রহিমা আকতার (৩২) ছুটে গেলে তাকেও চুল ধরে টানা হেছড়াপূর্বক লাথি ও ঘুষি মেরে জখম করে নুরুল আলম। এসময় আবুল খায়ের নামে এক ব্যক্তি মামলার বাদীকে ধারালো কিরিচ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কোপালে তিনি রক্তাক্ত হলে তার মেয়ে নুসরাত (১৩) মাকে বাঁচাতে ছুটে আসলে তাকেও মারধর করলে দুজনে মাটিতে লুটিয়ে পড়। এরপর স্থানীয় এলাকা বাসিরা এসে তাদের কে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল ভর্তি করান। পরে অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চমেক হাসপাতালে প্রেরন করে।

মামলার বাদী রহিমা বেগম বলেন,আমার ননদ সাজিয়া বেগম ও ননদের জামাই নুরুল আলম ও শ্বশুর আবুল খায়েরসহ মিলে দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতন করে আসছে সেদিন তুচ্ছ ঘটনা দিয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যা উদ্দেশ্যে হামলা করে। আমি এ নির্যাতনে সুষ্টবিচার চাই।  এঘটনায় জড়িত আসামীদের গ্রেফতার করে দ্রুত আইনের আওতায় নেওয়ার জন্য প্রশাসনের উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন।