নিউজটি শেয়ার করুন

বাকলিয়ায় মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে চাঁদা দাবির অভিযোগ,না দিলে মেরে ফেলার হুমকি

শাহরুখ সায়েল: বাকলিয়ায় মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে চাঁদা দাবি, না দিলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়ার অভিযোগ। আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগি অসহায় এক কাপড় ব্যবসায়ী।

জানা যায়, নগরীর বাকলিয়া থানাধীন ১৯ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কাপড় ব্যবসায়ী মোঃ কাইছারের কাছে চাঁদা ও মনোনীত ট্রান্সপোর্টের মাধ্যেমে কাপড় সরবরাহ না করায় প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে সাঈদ রহিম নামের এক ব্যক্তি।

মামলা সুত্রে জানা যায়, বাকলিয়াতে ব্যবসা করতে হলে মাসিক ৫০,০০০ চাঁদা দিতে হবে এবং মনোনীত ট্রান্সপোর্টের মাধ্যেমে কাপড় সরবরাহ করতে হবে, নয়তো মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী কাইছার।

২৫ ফেব্রুয়ারি ফোনে ও ১ মার্চ বাকলিয়া থানাধীন কল্পলোক আবাসিক এলাকার প্রবেশ পথে হত্যার হুমকির বিষয়ে বাকলিয়া থানায় অভিযোগ নিয়ে গেলে কাইছারকে আদালতে মামলা করার পরামর্শ দেয় থানা কতৃপক্ষ। গত ৩মার্চ চীফ মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চট্টগ্রামে সাঈদ রহিমসহ অজ্ঞাতনামা ৪ জনকে আসামী করে ফৌজদারী অভিযোগ করেন কাইছার।

চাঁদা দাবী ও হুমকি দাতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন ভুত্তভোগী কাপড় ব্যবসায়ী মোঃ কাইছার।

ঘটনার সত্যতা জানতে অভিযুক্ত সাঈদ রহিমকে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে সিপ্লাসকে বলেন, আমি কাউকে হুমকি দেইনি। কারো সাথে আমার এরকম কথোপকথন হয়নি। অপরিচিত কেউ আমার ব্যবসায়িক সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য এগুলো করছে।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা বাকলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক আসাদুর রহমান সিপ্লাসকে বলেন, এ ধরনের একটি অভিযোগ আমরা পেয়েছি তাছাড়া আদালতে একটি মামলা হয়েছে। হত্যা ও চাঁদার দাবিতে হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে উল্লেখ রয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত করে সঠিক রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য কাজ করছি।

আরো বিস্তারিত জানতে ভিডিও লিংকে প্রবেশ করুন…