নিউজটি শেয়ার করুন

পুষ্পবৃষ্টি ঝড়িয়ে করোনা যোদ্ধাদের অভিবাদন

সিপ্লাস ডেস্ক: আকাশ থেকে যুদ্ধবিমান ও হেলিকপ্টারের মাধ্যমে পুষ্পবৃষ্টি ঝড়িয়ে করোনা যোদ্ধাদের অভিবাদন জানিয়েছে ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী।

এ নিয়ে তৃতীয়বার ভারতজুড়ে করোনাভাইরাস-যোদ্ধাদের সম্মান জানানো হল। প্রথম দু’বার হয়েছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণায়। প্রথমে সবাই হাততালি দিয়েছিলেন, বাজিয়েছিলেন কাঁসার-ঘণ্টা, শঙ্খ। এরপর রাতে বাতি নিভিয়ে মোমবাতি আর প্রদীপের আলো জ্বালিয়ে করোনা-যোদ্ধাদের কৃতজ্ঞতা জানায় ভারতবাসী।

এর আগে শুক্রবার তাদের অভিবাদন জানাতে পুষ্পবৃষ্টিসহ অন্যান্য কর্মসূচি ঘোষণা করেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) বিপিন রাওয়াত ও তিন বাহিনীর প্রধানরা।

কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, দিল্লির পুলিশ মেমোরিয়ালে তিন বাহিনীর প্রধান দেশ জুড়ে এই অনুষ্ঠানের সূচনা করেন। ভারতের প্রায় সব শহরের আকাশে বিমানবাহিনীর যুদ্ধবিমান ও হেলিকপ্টার ওড়ে। ৫০০ থেকে ১০০০ মিটার ওপর থেকে ফুল ছড়িয়েছে এই যুদ্ধবিমানগুলো। এ ছাড়া সি-১৩০ হেলিকপ্টারও একই রুটে পুষ্পবর্ষণ করেছে।

ব্যাঙ্গালুরুতে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের ওপর হেলিকপ্টার থেকে ফুল ছড়ানোর সময় সেখানকার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদেরকে উল্লাস করতে দেখা গেছে স্থানীয় টিভি ফুটেজে। সঙ্গে বাজছিল সামরিক ব্যান্ডের সুর। মুম্বাইয়েরও প্রায় সব সরকারি হাসপাতালের ওপর পুষ্পবৃষ্টি হয়েছে। শ্রীনগরে ডাল লেক এবং ও চণ্ডীগড়ের সুকনা লেকেও হয়েছে ফুলবর্ষণ।

তাছাড়া, রোববার দিনশেষে ভারতের নৌবাহিনী এবং উপকূলরক্ষীদের জাহাজগুলো উপকূলের ৩০ টিরও বেশি জায়গায় অবস্থান নিয়ে আলো, অগ্নিশিখা জ্বালানোর কর্মসূচি নিয়েছে।

মুম্বাইয়ের গেটওয়ে অব ইন্ডিয়ার কাছে সমুদ্র উপকূলে পাঁচটি যুদ্ধজাহাজ অবস্থান করবে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে রাত প্রায় ১২ টা পর্যন্ত। জাহাজের সাইরেন বাজিয়ে এবং আলোর মালায় তারা উদ্বুদ্ধ করবে করোনা-যোদ্ধাদের। এছাড়া গোয়ায় রানওয়ের ওপর মানববন্ধনেরও কর্মসূচি নিয়েছে নৌবাহিনী।