নিউজটি শেয়ার করুন

নিষিদ্ধ হচ্ছে পেট্রোল-ডিজেলচালিত গাড়ি!

 সিপ্লাস ডেস্ক: ২০৩০ সাল থেকে যুক্তরাজ্যের বাজারে পেট্রোল ও ডিজেলচালিত গাড়ি বিক্রি নিষিদ্ধ করার কথা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সবুজ শিল্প বিপ্লবের যে ডাক তিনি দিয়েছেন এরই অংশ হিসেবে এই ঘোষণা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর।

তবে, তখনও অল্প সংখ্যক হাইব্রিড গাড়ির বাজার থাকবে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।

এদিকে, এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ৪ বিলিয়ন পাউন্ডের বরাদ্দকে ‘ছোট’ হিসাবে আখ্যা দিয়ে সমালোচনা করেছেন সমালোচকরা। এই বরাদ্দ যুক্তরাজ্যে হাইস্পিড রেল যোগাযোগের ২য় পর্যায়ের জন্য যে বরাদ্দ ১০০ বিলিয়ন পাউন্ড দেয়া হয়েছে তার ২৫ ভাগের মাত্র এক ভাগ।

বিজ্ঞাপন

যদি বলা হয়েছে, ৪ বিলিয়ন পাউন্ড আসলে এই খাতে সরকারের ১২ বিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় পরিকল্পনারই অংশ। এবং এতে ধীরে ধীরে আরও বেসরকারি বিনিয়োগ যোগ হবে।

জানানো হয়েছে, এই বিনিয়োগ ও সবুজ শিল্প ভাবনায় রয়েছে, বড় আকারের পারমাণবিক প্ল্যান্ট নির্মাণ ও ছোট ছোট অনেকগুলো নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর স্থাপন করা। আর এতেই রোলস-রয়েসসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে ১০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ সরকারের প্রত্যাশা, এই প্রকল্পে মোট আড়াই লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে। বিশেষ করে উত্তর ইংল্যান্ড ও ওয়ালেস শহরে বেশি হবে। এর মধ্যে আবার ৬০ হাজার বিদেশিরও সুযোগ হবে।

আর এই সবুজ শিল্পপায়নের পথে অনেক বাড়িঘরের ক্ষতি হবে বলে ধরেই নেয়া হচ্ছে।

২০২৩ সাল থেকে যুক্তরাজ্যে বাড়িঘরের উষ্ণতা বাড়াতে গ্যাসের ব্যবহার থেকে সরে আসতে হবে। এজন্য, ২০২৮ সাল নাগাদ ৬ লাখ হিটপাম্প নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। যেখান থেকে জ্বালানি সাশ্রয়ী ছোট ছোট ডিভাইসগুলো রিচার্জ করে আনা যাবে, যা ঘরবাড়ির উষ্ণতা বৃদ্ধিতে ব্যবহার করতে পারবেন যুক্তরাজ্যের বাসিন্দারা।